বগুড়ায় 'বিশেষ চাহিদাসম্পূর্ণ' ৬ শিশুকে সংবর্ধনা

সর্বমোট পঠিত : 24 বার
জুম ইন জুম আউট পরে পড়ুন প্রিন্ট

স্পেশাল শিশুদের জন্য কিছু করার জন্য আহ্বান জানিয়ে ডা. সামির হোসেন মিশু বলেন, বগুড়ায় বিশেষ চাহিদা সম্পূর্ণ শিশুদের চিকিৎসায় এটিই একমাত্র প্রতিষ্ঠান। এমন প্রতিষ্ঠান উত্তরাঞ্চলেও আর নেই। এই প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে উত্তরাঞ্চলের অনেক রোগী সেবা পাচ্ছে। তারা সুস্থ হয়ে মূলধারার স্কুলে পড়াশোনা করছে। এমন চিকিৎসা সেবায় সহযোগিতার হাত নিয়ে সমাজের সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে।


বগুড়ায় নিউরোডেভেলপমেন্টাল ডায়াগনস্টিক এন্ড ডিসএবিলিটি ক্লিনিকে চিকিৎসা নেওয়া বিশেষ চাহিদাসম্পূর্ণ ছয় শিশু সুস্থ হওয়ায় তাদের সংবর্ধনা দেওয়া হয়েছে। বুধবার বগুড়া শহরের দক্ষিণ ঠনঠনিয়া এলাকায় ওই ক্লিনিকের নিজস্ব কার্যালয়ে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয় ।

সংবর্ধনা পাওয়া শিশুরা হলো নুহু, সাবাব, নীল, রাইহান, নীরব ও তামহিদ। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন বগুড়া জেলা সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ শফিউল আজম। বিশেষ অতিথি ছিলেন বগুড়া সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সামির হোসেন মিশু।

অনুষ্ঠানে সিভিল সার্জন বলেন, ঢাকার বাহিরে এমন সেন্টার দারুণ উদ্যোগ। বিশেষ চাহিদা সম্পূর্ণ শিশুকে পিছিয়ে রেখে এসডিজি অর্জন করা সম্ভব নয়। স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে হলে স্মার্ট সিটিজেন দরকার। এই সেন্টার স্মার্ট বাংলাদেশে গড়তে ভূমিকা রাখবে। পিছিয়ে পড়া শিশুরা বেশি মেধাবী হয়, তাদের যথাযথ যত্ন নিতে হবে।

স্পেশাল শিশুদের জন্য কিছু করার জন্য আহ্বান জানিয়ে ডা. সামির হোসেন মিশু বলেন, বগুড়ায় বিশেষ চাহিদা সম্পূর্ণ শিশুদের চিকিৎসায় এটিই একমাত্র প্রতিষ্ঠান। এমন প্রতিষ্ঠান উত্তরাঞ্চলেও আর নেই। এই প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে উত্তরাঞ্চলের অনেক রোগী সেবা পাচ্ছে। তারা সুস্থ হয়ে মূলধারার স্কুলে পড়াশোনা করছে। এমন চিকিৎসা সেবায় সহযোগিতার হাত নিয়ে সমাজের সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে।

২০১৬ সালে নিউরোডেভেলপমেন্টাল ডায়াগনস্টিক এন্ড ডিসএবিলিটি ক্লিনিক বগুড়ায় যাত্রা শুরু করেন। এর মধ্যে ২ শতাধিক বিশেষ চাহিদা সম্পূর্ণ শিশু সুস্থ হয়ে মূলধারার স্কুলে গিয়ে পড়াশোনা করছে। বর্তমান এই প্রতিষ্ঠানে ৩৫ জন শিশু চিকিৎসাধীন রয়েছে।

বিশেষ চাহিদা সম্পূর্ণ শিশুদের সেবায় কাজ করা এই প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন আয়েশা সিদ্দিকা। এখানে প্রধান সমন্বয়কারী হিসেবে রয়েছেন মাহাদী ইসলাম।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের পরে বিশেষ চাহিদা সম্পূর্ণ শিশুদের এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও পিঠা উৎসবের আয়োজন করা হয়।

মন্তব্য

আরও দেখুন

নতুন যুগ টিভি