আগামীকাল সাংবাদিক দুলাল হোসাইনের দ্বিতীয় মৃত্যু বার্ষিকী

সর্বমোট পঠিত : 15 বার
জুম ইন জুম আউট পরে পড়ুন প্রিন্ট

আগামীকাল ৭ ফেব্রুয়ারি সাংবাদিক দুলাল হোসাইনের দ্বিতীয় মৃত্যু বার্ষিকী। দীর্ঘ ১০ মাসক্যান্সারের সাথে যুদ্ধ শেষে ২০২২ সালের ৭ ফেব্রুয়ারি সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান জামালপুরের এই গুনী সাংবাদিক।


আগামীকাল ৭ ফেব্রুয়ারি সাংবাদিক দুলাল হোসাইনের দ্বিতীয় মৃত্যু বার্ষিকী। দীর্ঘ ১০ মাসক্যান্সারের সাথে যুদ্ধ শেষে ২০২২ সালের ৭ ফেব্রুয়ারি সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান জামালপুরের এই গুনী সাংবাদিক।

১৯৬৫ সালের ১০ ডিসেম্বর জামালপুর পৌর এলাকার হাটচন্দ্রা গ্রামে পিতা ইদ্রিস আলী এবং মাতা আনোয়ারা বেগমের ঘরে জন্মগ্রহণ করেন দুলাল হোসাইন। পাঁচভাই বোনেরমধ্যে তৃতীয় সন্তান ছিলেন দুলাল হোসাইন। দুলাল হোসাইন ছোট বেলা থেকেই ছিলেন অত্যন্ত মেধাবী ও পরিশ্রমী। আর্থিক অভাবের কারণে লেখাপড়া ছেড়ে খুব কম বয়সে সংসারের হাল ধরেন দুলাল হোসাইন। তবে সম্মান ও সফলতার উ”চ শিহরে পৌঁছানোর আশায় হাজারও অভাবের পরেও ১৯৮২ সালে সাংবাদিকতা পেশায় যোগদান করেন দুলাল হোসাইন।

১৯৮২ সালে পাক্ষিক জামালপুর প্রবাহ। এরপর ১৯৮৬ সালে ময়মনসিংহ থেকে প্রকাশিত আঞ্চলিক পত্রিকা দৈনিক আজকের স্মৃতি। জেলা প্রতিনিধি হিসেবে জাতীয় পত্রিকা দৈনিক ভোরের ডাকে কাজ শুরু করেন ১৯৮৮ সালে। এরপর ১৯৯১ সালে দৈনিক সকালের খবর, ১৯৯৭ সালে দৈনিক সংবাদ এবং সর্বশেষ ২০০০ সাল থেকে মৃত্যুর আগ পর্যন্ত জাতীয় দৈনিক ভোরের কাগজে স্টাফ রিপোর্টার হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

এছাড়াও ২০০৬ সালের ১ডিসেম্বর বেসরকারি টিভি বৈশাখী টেলিভিশনে জামালপুর প্রতিনিধি হিসেবে যোগদান করে ইলেক্ট্রনিক্স মিডিয়াতে তার কাজ শুরু হয়। এরপর ২০০৯ সালের ১লা অক্টোবর থেকে কাজ করেন দেশ টিভিতে এবং সর্বশেষ ২০১১ সালের ১৮ই মে থেকে মৃত্যুর আগ পর্যন্ত কাজ করেছেন ইনডিপেনডেন্ট টেলিভিশনে।

৯০ দশকে জেলার সর্বাধিক জনপ্রিয় পত্রিকা সাপ্তাহিক ঝিনাই-এর নির্বাহীসম্পাদক পদে দায়িত্ব পালন করেছেন দীর্ঘদিন।

তার লেখনী, নির্ভীক ও নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার মাধ্যমে মন কেড়েছেন লাখো জামালপুরবাসীর।
শুধু সাংবাদিকতায় নয়, সাংবাদিক নেতা হিসেবেও সুনাম কুড়িয়েছেন এই সাংবাদিক। সাংবাদিকদের অধিকার আদায়ের সকল আন্দোলনে সর্বদা সো”চার ও কঠোর ছিলেন সাংবাদিক দুলাল হোসাইন।

১৯৯১ সালে জামালপুর প্রেসক্লাবের ক্রীড়া ও সাহিত্য বিষয়ক সম্পাদক পদে নির্বাচিত হন সাংবাদিক দুলাল হোসাইন। এর পরবিভিন্ন মেয়াদে বিভিন্ন সময় জামালপুর প্রেসক্লাবের কার্যনির্বাহী পরিষদে জায়গা করে নিয়েছিলেন সাংবাদিক দুলাল হোসাইন। এরপর ২০০২ সালে সর্ব প্রথম জামালপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচিত হন তিনি। জামালপুর জেলা প্রেসক্লাবের সভাপতির দায়িত্বও পালন করেন দুলাল হোসাইন। ২০১৮ সালে আবারও জামালপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচিত হন। সর্বশেষ মৃত্যুর আগ পর্যন্ত জামালপুর প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন তিনি।

মৃত্যু কালে সাংবাদিক দুলাল হোসাইনের বয়স হয়েছিলো ৫৭ বছর। দিনটি উপলক্ষ্যে নানাকর্মসূচী হাতে নিয়েছে বিভিন্নসংগঠন ও তারপরিবারের লোকজন।

মন্তব্য

আরও দেখুন

নতুন যুগ টিভি