বিশ্ব ইজতেমায় আখেরি মোনাজাত কখন, জানা গেল

সর্বমোট পঠিত : 159 বার
জুম ইন জুম আউট পরে পড়ুন প্রিন্ট

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার মাহবুব আলম বলেন, আগামীকাল রোববার বিশ্ব ইজতেমার আখেরি মোনাজাত সকাল ৯টা থেকে সাড়ে ৯টায় অনুষ্ঠিত হবে বলে আমরা জানতে পেরেছি। আমরা এই সময়ের জন্য আমাদের নিরাপত্তা ব্যবস্থা ঢেলে সাজিয়েছে। আমাদের ট্রাফিক ব্যবস্থা নতুন করে সাজিয়েছি। সেটা হলো, আমাদের ভোগড়া বাইপাস থেকে ইজতেমামুখী সাধারণ জনগণের কোনো গাড়ি চলবে না, তারা ড্রাইভার্ট হয়ে ভোগড়া বাইপাস দিয়ে মীরের বাজারের দিকে চলে যাবে। মুসল্লিদের গাড়ি আসতে পারবে। মীরের বাজার পর্যন্ত গাড়ি বন্ধ থাকবে, মুসল্লিদের গাড়ি ছাড়া অন্য কারো গাড়ি আসতে পারবে না। ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের এলাকায় একইভাবে গাড়ি কুড়িল বিশ্ব রোড থেকে ড্রাইভার্ট করে দেবে তিনশ ফিটের দিকে। আশুলিয়া সড়কের গাড়ি মিরপুর বেড়িবাঁধের দিকে ড্রাইভার্ট করে দেবে। এদিকে কোনো গাড়ি চলতে দেওয়া হবে না। এই হলো আমাদের ট্রাফিক পরিবর্তন।

গাজীপুরের টঙ্গীর তুরাগ নদীর তীরে ইজতেমায় অংশ নেওয়া মুসল্লিদের পাশাপাশি গাজীপুর ও আশপাশের বিভিন্ন জেলার কয়েক লাখ মুসল্লি এই আখেরি মোনাজাতে অংশ নেবেন।

ইজতেমার প্রথম পর্ব আগামীকাল রোববার (৪ ফেব্রুয়ারি) শেষ হচ্ছে। তাই আখেরি মোনাজাত রোববার সকাল ৯টা থেকে সাড়ে ৯টার মধ্যে অনুষ্ঠিত হবে।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার মাহবুব আলম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। শনিবার (৩ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের কন্টোল রুমে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা জানান।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার মাহবুব আলম বলেন, আগামীকাল রোববার বিশ্ব ইজতেমার আখেরি মোনাজাত সকাল ৯টা থেকে সাড়ে ৯টায় অনুষ্ঠিত হবে বলে আমরা জানতে পেরেছি। আমরা এই সময়ের জন্য আমাদের নিরাপত্তা ব্যবস্থা ঢেলে সাজিয়েছে। আমাদের ট্রাফিক ব্যবস্থা নতুন করে সাজিয়েছি। সেটা হলো, আমাদের ভোগড়া বাইপাস থেকে ইজতেমামুখী সাধারণ জনগণের কোনো গাড়ি চলবে না, তারা ড্রাইভার্ট হয়ে ভোগড়া বাইপাস দিয়ে মীরের বাজারের দিকে চলে যাবে। মুসল্লিদের গাড়ি আসতে পারবে। মীরের বাজার পর্যন্ত গাড়ি বন্ধ থাকবে, মুসল্লিদের গাড়ি ছাড়া অন্য কারো গাড়ি আসতে পারবে না। ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের এলাকায় একইভাবে গাড়ি কুড়িল বিশ্ব রোড থেকে ড্রাইভার্ট করে দেবে তিনশ ফিটের দিকে। আশুলিয়া সড়কের গাড়ি মিরপুর বেড়িবাঁধের দিকে ড্রাইভার্ট করে দেবে। এদিকে কোনো গাড়ি চলতে দেওয়া হবে না। এই হলো আমাদের ট্রাফিক পরিবর্তন।

তিনি আরও বলেন, যখন আখেরি মোনাজত শেষ হবে, তখন আমরা প্রথম চেষ্টা করব এক্সপ্রেসওয়ে ও ফ্লাইওভারটি আগে চালু করার জন্য। ফ্লাইওভারটি চালু হলে আস্তে আস্তে যানবাহনগুলো ভেতরে ঢুকবে, অনেক মুসল্লি দ্রুত চলে যেতে পারবেন।

মন্তব্য

আরও দেখুন

নতুন যুগ টিভি