শেরপুরে যুবদের আইসিটি দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণ

সর্বমোট পঠিত : 42 বার
জুম ইন জুম আউট পরে পড়ুন প্রিন্ট

বিভিন্ন অ্যাপস ও ডিজিটাল ডিভাইস ব্যবহারের মাধ্যমে সরকারি ও অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের সেবা প্রাপ্তি এবং সামাজিক দায়িত্ব পালন জোরদারে শেরপুরে যুবদের আইসিটি দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। নাগরিক প্ল্যাটফরম জনউদ্যোগ শেরপুর জেলা কমিটির উদ্যোগে দুই দিনব্যাপী এ প্রশিক্ষণ ১৭ সেপ্টেম্বর রবিবার শেষ হয়েছে।


বিভিন্ন অ্যাপস ও ডিজিটাল ডিভাইস ব্যবহারের মাধ্যমে সরকারি ও অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের সেবা প্রাপ্তি এবং সামাজিক দায়িত্ব পালন জোরদারে শেরপুরে যুবদের আইসিটি দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। নাগরিক প্ল্যাটফরম জনউদ্যোগ শেরপুর জেলা কমিটির উদ্যোগে দুই দিনব্যাপী এ প্রশিক্ষণ ১৭ সেপ্টেম্বর রবিবার শেষ হয়েছে।

শহরের নিউমার্কেটের দ্বিতীয় তলায় ইনস্টিটিউট অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনীয়ার্স বাংলাদেশ কার্যালয়ের সভাকক্ষে দুই দিনব্যাপী এ প্রশিক্ষণে জনউদ্যোগ যুব ফোরামের ২০ জন তরুণ-তরুনী অংশগ্রহণ করে।

প্রশিক্ষণে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারের নিয়ম, বিষয়, টেকনিক ভাষা, সার্চ ইঞ্জিনের ব্যবহার, অ্যাপস ডাউনলোড ও ব্যবহার, অনলাইনে সরকারি-বেসরকারি সেবাপ্রাপ্তি সম্পর্কে হাতে-কলমে প্রশিক্ষন প্রদান করা হয়। এছাড়াও ছবি-ভিডিও এডিটিং, অনলাইন কনটেন্ট তৈরী ও আপলোড করা, আইসিটি ক্যারিয়ার কাউন্সিলিং, ডিজিটাল মার্কেটিং, ই-কমার্স, এফ কমার্স, ফ্রি-ল্যান্সিং, ওয়েব পেইজ তৈরী, অনলাইনে গুজব, কুতথ্য যাচাই, চিহ্নিতকরণ ও প্রতিরোধের উপায় এবং সাইবার নিরাপত্তা আইন সম্পর্কে ধারণা প্রদান করা হয়।

সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রশিক্ষণার্থীদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য রাখেন জনউদ্যোগ শেরপুর কমিটির আহŸায়ক শিক্ষক মো. আবুল কালাম আজাদ। এসময় তিনি বলেন, ডিজিটাল জগতের বাস্তবতায় এখন নতুন সম্ভাবনা নিয়ে উন্নত জাতিগঠনে স্মার্ট বাংলাদেশের স্বপ্নযাত্রা শুরু হয়েছে। এজন্য আমাদেরকে স্মার্ট নাগরিক হতে হবে। এজন্য তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিতে দক্ষতার বিকল্প নেই। ডিজিটাল জগতের মহাসমুদ্রে ভালো জিনিষের পাশাপাশি অনেক বিপদ এবং ফাঁদও রয়েছে। এজন্য আমাদেরকে সচেতন ও সতর্ক হতে হবে। ভালোকিছু গ্রহণ করার সাথে সাথে খারাপগুলোও বর্জন করার কৌশল শিখতে হবে।

এজন্য তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহারের টেকনিক, আইনকানুন, নীতিমালা সম্পর্কে জানতে হবে, সচেতন হতে হবে। কোনটা মিথ্যা, ভুয়া, গুজব, অপপ্রচার এসব চিহ্নিত করার দক্ষতা অর্জন করতে হবে। আশাকরি এ প্রশিক্ষণের মধ্য দিয়ে তোমরা কিছুটা হলেও সে দক্ষতা অর্জন করতে পেরেছে। এখন বাস্তব জীবনে এই প্রশিক্ষণলব্ধ জ্ঞান তোমাদেরকে কাজে লাগাতে হবে, তবেই এ প্রশিক্ষণের সার্থকতা হবে। এর আগে শরিবার সকালে দুই দিনব্যাপী প্রশিক্ষণের উদ্বোধন করেন নারী উদ্যোক্তা আইরীন পারভীন।

এসময় সাংবাদিক হাকিম বাবুল-এর সঞ্চালনায় জনউদ্যোগ সংগঠক মানবাধিকার কর্মী শামীম হোসেন, শিক্ষক-সংস্কৃতিকর্মী এস.এম. আবু হান্নান, যুব সংগঠক শুভংকর সাহা, বিতার্কিক এসএম. ইমতিয়াজ চৌধুরী প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ইনস্টিটিউট ফর এনভায়রণমেন্ট অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট (আইইডি) প্রশিক্ষণটি বাস্তবায়নে সার্বিক সহযোগিতা করে। এতে প্রশিক্ষক ছিলেন ওয়েব ডেভেলপার-আউটসোর্সার, স্মার্ট বাংলাদেশ প্রচারণায়যুক্ত উদ্যোক্তা মিনহাজ উদ্দিন, বিতার্কিক এসএম ইমতিয়াজ চৌধুরী, অনলাইন কনটেন্ট নির্মাতা ইমামুল হাসান তানভীর।

মন্তব্য

আরও দেখুন

নতুন যুগ টিভি