চারবারের বিশ্বকাপজয়ী দলকে একহালি গোল দিলো জাপান!

সর্বমোট পঠিত : 112 বার
জুম ইন জুম আউট পরে পড়ুন প্রিন্ট

জার্মানি চারবারের বিশ্বকাপজয়ী দল। সে তুলনায় জাপান একটি পুঁচকে দল। বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ অর্জন তাদের দ্বিতীয় রাউন্ড। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে জাপান যেন বড় দুঃখ হয়ে দেখা দিয়েছে জার্মানির জন্য। কাতার বিশ্বকাপে গ্রুপ পর্বের প্রথম ম্যাচেই জাপানের কাছে ২-১ গোলে হেরে বাজে সূচনা হয়েছিলো জার্মানদের। যে কারণে শেষ পর্যন্ত তাদেরকে গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নিতে হয়েছিলো।


জার্মানি চারবারের বিশ্বকাপজয়ী দল। সে তুলনায় জাপান একটি পুঁচকে দল। বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ অর্জন তাদের দ্বিতীয় রাউন্ড। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে জাপান যেন বড় দুঃখ হয়ে দেখা দিয়েছে জার্মানির জন্য। কাতার বিশ্বকাপে গ্রুপ পর্বের প্রথম ম্যাচেই জাপানের কাছে ২-১ গোলে হেরে বাজে সূচনা হয়েছিলো জার্মানদের। যে কারণে শেষ পর্যন্ত তাদেরকে গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নিতে হয়েছিলো।

বিশ্বকাপের প্রায় ৯ মাস পর আবারও মুখোমুখি হলো দুই দল। এবার ফিফা প্রীতি ম্যাচে। কিন্তু বিশ্বকাপে সেই হারের প্রতিশোধ তো জার্মানরা নিতেই পারেনি, উল্টো গো হারা হারতে হলো তাদেরকে। জাপানের কাছে ৪-১ গোলে রীতিমত বিধ্বস্ত হতে হয়েছে চারবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের।

উলফসবার্গের ভক্সওয়াগান অ্যারেনায় প্রথমার্ধেই ১-২ ব্যবধানে পিছিয়ে পড়ে জার্মানি। ১১ মিনিটে জাপানকে এগিয়ে দেন জুনিয়া ইতো। গোল খেয়ে আক্রমণের ঝাঁঝ বৃদ্ধি করে জার্মানেরা। ১৯ মিনিটে দলের পক্ষে সমতা ফেরান বায়ার্ন মিউনিখের স্ট্রাইকার লেরয় সানে। তারপরেও সুবিধা করতে পারল না জার্মানি। বরং জাপানের একের পর এক আক্রমণে কিছুটা কোণঠাসা হয়ে যান গুনদোয়ান-কিমিটেরা। ২২ মিনিটে জাপানের হয়ে দ্বিতীয় গোল করেন আয়েসে উয়েদা।

দ্বিতীয়ার্ধে সমতা ফেরানোর লক্ষ্যে আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলার চেষ্টা করে জার্মানি। কিন্তু জাপানের রক্ষণ সংগঠন ভাঙতে পারেননি তারা। প্রতি আক্রমণ নির্ভর ফুটবল খেলে সুবিধা করতে পারেনি জাপানও। ম্যাচের শেষ বেলায় জার্মানদের হতাশার সুযোগ কাজে লাগিয়ে দুমিনেটের দুগোল তুলে নেয় তারা। ৯০ মিনিটে তৃতীয় গোল করেন তাকুমা আসানো। ২ মিনিট পরেই আও তানাকা জাপানের হয়ে চতুর্থ গোল করে ব্যবধান আরও বাড়িয়ে দেন।

২০২১ সালের আগস্টে জোয়াকিম লোর পর জাতীয় দলের দায়িত্ব নিয়েছিলেন বায়ার্নের প্রাক্তন কোচ ফ্লিক। গত দু’বছরে তাঁর কোচিংয়ে জার্মানি ২৫টি ম্যাচ খেলে জয় পেয়েছে ১২টিতে। শেষ ১২টি ম্যাচের তিনটে জয়ে পেয়েছে ফ্লিকের দল। জয় তিনটি ওমান, কোস্টারিকা এবং পেরুর মতো দলের বিপক্ষে। দেশের মাটিতে শেষ ছয় ম্যাচের মধ্যে মাত্র একটিতে জিতেছে হ্যান্সি ফ্লিকের দল।

২০২৪ ইউরোর আয়োজক জার্মানি। তাই বাছাইপর্ব খেলতে হচ্ছে না তাদের। প্রীতি ম্যাচ আয়োজন করে ঝালিয়ে নিচ্ছে নিজেদের। তারই অংশ হিসেবে মঙ্গলবার ফ্রান্সের বিপক্ষে আরেকটি প্রীতি ম্যাচ খেলবে জার্মানরা।

মন্তব্য

আরও দেখুন

নতুন যুগ টিভি