লক্ষ্মীপুরে ইটভাটার দেয়াল তিনজন নিহত


নিউজ ডেস্ক:
লক্ষ্মীপুরে ইটভাটার দেয়াল ধসে দুইভাই বেলাল হোসেন,ফারুক হোসেনসহ তিনজন নিহত হয়েছে। এছাড়া অন্য নিহত ব্যাক্তি হচ্ছে রাকিব হোসেন। তারা সবাই রামগঞ্জের ভোলাকোর্ট এলাকার মদিনা ইটভাটায় শ্রমিকের কাজ করতো। এসময় আরো ১০ শ্রমিক আহত হয়।

তাদের উদ্ধার করে সদর হাসপাতাল ও রামগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভর্তি করা হয়েছে। এদের মধ্যে হেলাল হোসেন ও আরমান হোসেনসহ ৫ জনের অবস্থায় আশংকাজনক। আজ রোববার সন্ধ্যায় এ দূর্ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর ইটভাটার মালিক আমির হোসেনসহ অন্যরা পালিয়ে যায়।

পুলিশ ও শ্রমিকরা জানায়, রোবার বিকেলে প্রতিদিনের ১৫/২০জন শ্রমিক ইটভাটায় কাজ করছিলো। হঠাৎ ইটভাটার দেয়াল ধসে পড়ে। এতে দেয়াল চাপা পড়ে দুই ভাই বেলাল হোসেন ও ফারুক হোসেন ঘটনাস্থলে মারা যায়। আহত হয় আরো ১১জন শ্রমিক। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নেয়ার পথে মারা যায় রাকিব হোসেন নামে আরো এক শ্রমিক। এ পর্যন্ত মারা গেছে তিন শ্রমিক। গুরুতর আহত অবস্থায় অন্য শ্রমিকদের উদ্ধার করে সদর হাসপাতাল ও রামগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভর্তি করা হয়েছে। এদের মধ্যে মধ্যে হেলাল হোসেন, আরমান হোসেন, জাবেদ হোসেনসহ ৫জনের অবস্থায় আশংকাজনক।

এদিকে ইটভাটার মালিকের গাফিলতি ও ভাটা ছিল খুব ঝুকিঁপূর্ন। এসব বিষয়ে বারবার বলার পরও ভাটা মালিক কোন ব্যবস্থা নেয়নি। তাই ইটভাটা ঝুকিপূর্ণ থাকার কারনে এঘটনা বলে দাবী করেন স্থানীয়রা।

সদর হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা: জয়নাল আবেদিন বলেন, ইটভাটার দেয়াল ধসে তিন শ্রমিক মারা যায়। এছাড়া আরো কয়েকজন আহত হয়। তবে ৫জনের অবস্থায় আশংকাজনক। তাদের চিকিৎসা চলছে।

পুলিশ সুপার ড. এএইচএম কামরুজ্জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ইটভাটার দেয়াল ধসে তিন শ্রমিক নিহত হয়। আরো কয়েকজন আহত হয়। নিহতের উদ্ধার করে সদর হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। তদন্ত চলছে। তদন্তের পর আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Top
ঘোষনাঃ