দখল-দূষণে বরিশাল নগরীর খালগুলো এখন ময়লার ভাগাড়

নিউজ ডেস্ক:
বরিশাল নগরীতে খালগুলোর বেহাল দশা। সবই যেন ময়লার ভাগাড়। নৌকা চলাচল এখন অসম্ভব প্রায়। গত দুই বছরের মতো এ বছর বর্ষা ও জোয়ারে নগরীর কিছু এলাকা পানিতে তলিয়ে যাওয়ার আশঙ্কা করছেন স্থানীয়রা। এ অবস্থায় দ্রুত খাল খনন করে পানিপ্রবাহ স্বাভাবিক করার দাবি করেছে নাগরিক সমাজ।

প্রচণ্ড গরমে কুকুরগুলো পানিতে নামার দৃশ্যই বলে দেয় এখানকার খালে কতটুকু পানি আছে। একসময় শহরে ৪৬টি খাল থাকলেও এখন অস্তিত্ব আছে মাত্র ৫ থেকে ৬টির। দখল আর দূষণে এগুলোও বিলীন হওয়ার পথে। খালগুলো পরিণত হয়েছে ভাগাড়ে। এ বিষয়ে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি নাগরিক সমাজের।

নদী-খাল বাঁচাও আন্দোলনের সদস্য সচিব কাজী এনায়েত হোসেন বলেন, আমরা প্রতিবারই আশ্বাস আর পেতে চাই না। প্রতিবার আশ্বাস দেয় আর ক্ষমতার পালাবদলে খালের আর উন্নয়ন হচ্ছে না।

বরিশাল সনাকের সভাপতি প্রফেসর শাহ সাজেদা বলেন, খালের গভীরতা বৃদ্ধি করার জন্য নাগরিকদের যেমন এগিয়ে আসা দরকার তেমনি জনপ্রতিনিধিদের এগিয়ে আমার দরকার।

এদিকে, সিটি মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ বলেন, সমস্যা সমাধানে ২৬শ’ কোটি টাকার প্রকল্প মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। বরাদ্দ পেলেই শুরু হবে কাজ।

গত ২৬ এপ্রিল থেকে নগরীর খালগুলো পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করার কার্যক্রম শুরু করেছে সিটি করপোরেশন। বর্ষার আগে শেষ করা গেলে পানি চলাচল কিছুটা হলেও স্বাভাবিক হবে বলে মনে করেন সংশ্লিষ্টরা।

Top
ঘোষনাঃ