শেরপুর বাবর আলী জামে মসজিদে ঈদুল ফিতরের জামাত অনুষ্ঠিত

 শেখ সাঈদ আহাম্মেদ সাবাব:
সরকার নির্দেশিত স্বাস্থ্যবিধি মেনেই অনুষ্ঠিত হয়েছে পবিত্র ঈদুল ফিতরের নামাজের জামাত। নিরাপদ শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে, মাস্ক পরে, নিজ নিজ জায়নামাজ নিয়ে নামাজ আদায় করেছেন ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা।
শুক্রবার (১৪ মে) সকাল ৯ টায় নয়নাভিরাম শেরপুর বাবর আলী জামে মসজিদে ঈদুল ফিতরের প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হয়।
বাবর আলী জামে মসজিদে সকল মুসল্লিদের সাথে নামাজ আদায় করেন এবং সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন মসজিদ কমিটির সভাপতি তরুণ শিল্পপতি গুলজার মোহাম্মদ ইয়াহ ইয়া জিহান, ইদ্রিস গ্রুপ অব কোম্পানী প্রাঃ লিঃ এর এমডি মোঃ জাহাঙ্গীর আলম। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, শেরপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মোঃ মেরাজ উদ্দিন, বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মো: দরবেশ আলী, ইদ্রিস গ্রুপ অব কোম্পানী প্রাঃ লিঃ এর ডিএমডি মোতাসিম বিল্লাহ আরিফ, বিপনন বিভাগের প্রধান লুৎফর রহমান ঠান্ডা, সাবেক মিলমালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোঃ শহীদ প্রমুখ।

মসজিদের নবনির্বাচিত সভাপতি তরুণ শিল্পপতি গুলজার মোহাম্মদ ইয়াহ ইয়া জিহান বলেন, শেরপুরের মানুষের প্রিয় ব্যক্তি ছিলেন আমার বাবা বিশিষ্ট শিল্পপতি, দানবীর ও সমাজ সেবক মরহুম আলহাজ্ব ইদ্রিস মিয়া। শত ব্যস্ততার মধ্যেও প্রতি ঈদেই আপনাদের সাথেই ঈদের নামাজ পড়তেন। তিনি সারা জীবন মানুষের সেবা করে গেছেন। আজ তিনি আমাদের মাঝে নেই। আমি আমার বাবার আত্মার মাগফিরাত কামনার জন্য আপনাদের কাছে দোয়া চাই। আর আমার বাবার মতো যাতে আপানদের পাশ্বে থাকতে পারি এজন্য আপনাদের কাছে দোয়া ও সহযোগিতা চাই।
মজজিদের ইমাম হাফেজ মাও: মো: শেখ ফরিদ নামাজ শেষে মরহুম আলহাজ্ব ইদ্রিস মিয়ার মাগফেরাত কামনা, দেশ ও জনগনের শান্তি কামনা এবং করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য বিষেশ ভাবে মোনাজাত করা হয়।
এদিকে সকাল সাড়ে ৯টায় অনুষ্ঠিত হয় শেখহাটি ইদ্রিসিয়া কামিল মাদ্রাসা জামে মসজিদে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়। এতে ইদ্রিসিয়া কামিল মাদ্রাসা থেকে কোরানে হাফেজ হওয়ায় হাফেজ মো: ছাদবিন হাফিজ ও শাহ মুহিবুল্লাহ ছাব্বিরকে পাগরি পড়িয়ে দেন ইদ্রিসিয়া কামিল মাদ্রাসার নবগঠিত কমিটির কমিটির সভাপতি তরুণ শিল্পপতি গুলজার মোহাম্মদ ইয়াহ ইয়া জিহান। এখানে নামাজ আদায় করেন অধ্যক্ষ আলহাজ্ব মো: ফজলুর রহমান।

Top
ঘোষনাঃ