টেকনাফ থেকে ১৪ হাজার পিস ইয়াবা জব্দ করল কোস্টগার্ড 

সর্বমোট পঠিত : 52 বার
জুম ইন জুম আউট পরে পড়ুন প্রিন্ট

লেফটেন্যান্ট কমান্ডার আব্দুর রহমান আরো বলেন, কোস্টগার্ডের এখতিয়ারভূক্ত এলাকাসমূহে বিভিন্ন মেডিকেল ক্যাম্পেইন এবং জনসচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা, আইন শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রন ও বন্যপ্রাণী রক্ষা পাশাপাশি সুন্দরবনে জলদস্যুতা, বনদস্যুতা, ডাকাতি দমন, মাদক নিয়ন্ত্রন ও জননিরাপত্তায় পাশাপাশি উপকূলীয় নদী ও সমুদ্র এলাকায় যে কোন ধরনের উদ্ধার অভিযান অব্যাহত আছে এবং ভবিষ্যতেও থাকবে।


কোস্টগার্ড পূর্ব জোনের অধিনস্ত বিসিজি টেকনাফ স্টেশনের একটি টহলদল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান পরিচালনা করে ১৪ হাজার পিস ইয়াবা জব্দ করেছে। 

১৪ জানুয়ারি শনিবার দুপুরে এতথ্য নিশ্চিত করেন কোস্টগার্ড সদর দপ্তরের মিডিয়া কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট কমান্ডার আব্দুর রহমান,বিএন।

তিনি বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ১৪ জানুয়ারি শনিবার রাত আনুমানিক ১টায় বিসিজি স্টেশন টেকনাফের একটি অপারেশন দল টেকনাফ উপজেলার তুলাতলী ঘাট এলাকায় একটি বিশেষ অভিযান পরিচালনা করা হয়।
 
অভিযান চলাকালীন তুলাতলী ঘাট হতে সন্দেহজনক এক ব্যক্তিকে একটি প্লাস্টিকের সাদা রংয়ের বস্তা কাঁধে নিয়ে মেরিন ড্রাইভে উঠতে দেখা যায়। লোকটির গতিবিধি সন্দেহজনক মনে হলে কোস্টগার্ড সদস্য কর্তৃক তাকে থামার সংকেত দেওয়া হয়। 

কোস্টগার্ডের উপস্থিতি বুঝতে পেরে লোকটি বস্তাটি রাস্তার পাশে জঙ্গলে ফেলে দ্রুত লোকালয়ে পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে কোস্ট গার্ড সদস্যরা বস্তাটি উদ্ধার করে জালের মধ্যে লুকিয়ে রাখা অবস্থায় ১৪ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট জব্দ করে।

জব্দকৃত ইয়াবা পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য টেকনাফ মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

লেফটেন্যান্ট কমান্ডার আব্দুর রহমান আরো বলেন, কোস্টগার্ডের এখতিয়ারভূক্ত এলাকাসমূহে বিভিন্ন মেডিকেল ক্যাম্পেইন এবং জনসচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা, আইন শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রন ও বন্যপ্রাণী রক্ষা পাশাপাশি সুন্দরবনে জলদস্যুতা, বনদস্যুতা, ডাকাতি দমন, মাদক নিয়ন্ত্রন ও জননিরাপত্তায় পাশাপাশি উপকূলীয় নদী ও সমুদ্র এলাকায় যে কোন ধরনের উদ্ধার অভিযান অব্যাহত আছে এবং ভবিষ্যতেও থাকবে।

মন্তব্য

আরও দেখুন

নতুন যুগ টিভি