গজনী অবকাশে যুক্ত হলো গজনী ফুড কর্ণার

গজনী অবকাশে যুক্ত হলো গজনী ফুড কর্ণার
সর্বমোট পঠিত : 97 বার
জুম ইন জুম আউট পরে পড়ুন প্রিন্ট

শেরপুরের জেলা প্রশাসক সাহেলা আক্তার বলেন, ভ্রমণপিপাসুদের সুবিধার্থে এবং গজনীকে আরও আকৃষ্ট করতে মনোরম পরিবেশে সাশ্রয়ী মূল্যে ও স্বাস্থ্যসম্মত খাবারের ব্যবস্থা করার জন্য এ ফুড কর্ণারের যাত্রা শুরু হলো। তিনি আরো বলেন, আমরা এ শীত মওসুমে ভ্রমন পিপাসুদের আনন্দ দিতে এ গজনী অবকাশকে উন্নয়ন করছি। নতুন নতুন রাইডস যুক্ত করছি। আমরা জানি দুরের দর্শনার্থীদের রাত্রি যাপন করা কষ্ট হয়। এজন্য আমরা চেষ্টা করছি যতদ্রুত সম্ভব একটি মোটেল নির্মান করার চেষ্টা করছি।

গজনী অবকাশে যুক্ত হলো গজনী ফুড কর্ণার

স্টাফ রিপোর্টার :

শেরপুরের সীমান্তবর্তী ঝিনাইগাতী উপজেলার গজনী অবকাশ পর্যটনকেন্দ্রে এবার নতুন করে যুক্ত হলো আধুনিক খাবার যোগান দিতে গজনী ফুড কর্ণার। এ পর্যটন কেন্দ্রে আগত দর্শনার্থীদের স্বল্পমূল্যে আধুনিক ও মানসম্পন্ন খাবার সরবরাহের জন্য ‘গজনী ফুড কর্ণার’ ইতিমধ্যে উদ্বোধন করা হয়েছে। ১০ ডিসেম্বর শনিবার দুপুরে গজনী অবকাশ কেন্দ্রে আনুষ্ঠানিকভাবে ফিতা কেটে ওই ফুড কর্ণারের উদ্বোধন করেন শেরপুরের জেলা প্রশাসক সাহেলা আক্তার।


ওইসময় তিনি বলেন, ভ্রমণপিপাসুদের সুবিধার্থে এবং গজনীকে আরও আকৃষ্ট করতে মনোরম পরিবেশে সাশ্রয়ী মূল্যে ও স্বাস্থ্যসম্মত খাবারের ব্যবস্থা করার জন্য এ ফুড কর্ণারের যাত্রা শুরু হলো। তিনি আরো বলেন, আমরা এ শীত মওসুমে ভ্রমন পিপাসুদের আনন্দ দিতে এ গজনী অবকাশকে উন্নয়ন করছি। নতুন নতুন রাইডস যুক্ত করছি। আমরা জানি দুরের দর্শনার্থীদের রাত্রি যাপন করা কষ্ট হয়। এজন্য আমরা চেষ্টা করছি যতদ্রুত সম্ভব একটি মোটেল নির্মান করার চেষ্টা করছি।


ঝিনাইগাতী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফারুক আল মাসুদের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সাইয়েদ এজেড মোরশেদ আলী, স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক তোফায়েল আহমেদ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মুকতাদিরুল আহমেদ, ঝিনাইগাতী উপজেলা চেয়ারম্যান এসএম আব্দুল্লাহেল ওয়ারেজ নাইম, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আশরাফুল কবীর, জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সিনিয়র সহকারী কমিশনার কাউছার আহাম্মেদ, এনডিসি মো. আসিফ রহমান, ঝিনাইগাতী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনিরুল আলম ভূইয়া, প্রেসক্লাব সভাপতি শরিফুর রহমান, সাবেক সভাপতি রফিকুল ইসলাম আধার, সাধারণ সম্পাদক মেরাজ উদ্দিন, কাংশা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আতাউর রহমান, ফুড কর্ণারের ইজারাদার মো. আব্দুর রশিদ বাবুসহ জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দসহ গণমাধ্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।


গজনী ফুড কর্ণারের ইজারাদার মো. আব্দুর রশিদ বাবু জানান, জেলা প্রশাসনের সার্বিক তত্বাবধানে এই ফুড কর্ণারে সুলভ মূল্যে উন্নতমানের চাইনিজ ও বাংলা খাবার পাওয়া যাবে। এতে গজনী অবকাশে ঘুরতে আসা পর্যটকদের খাওয়াদাওয়ার সুবিধা বৃদ্ধি পাবে।

মন্তব্য

আরও দেখুন

নতুন যুগ টিভি