ঢাকায় যুব ভলেন্টিয়ারদের ২ দিনব্যাপী ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠিত

সর্বমোট পঠিত : 72 বার
জুম ইন জুম আউট পরে পড়ুন প্রিন্ট

সারাদেশের ২৮টি জেলার প্রায় ৪০ জন যুব ভলেন্টিয়ারদের প্রাণবন্ত অংশগ্রহণে রাজধানী ঢাকায় বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ইয়েস বাংলাদেশ ও অপরাজেয় বাংলাদেশের আয়োজনে অনুষ্ঠিত হয়ে গেলো যুব নেতৃবৃন্দদের পলিসি এবং কোড অফ কন্ডাক্ট (আচরণবিধি) বিষয়ক ২দিন ব্যাপী কর্মশালা।


সারাদেশের ২৮টি জেলার প্রায় ৪০ জন যুব ভলেন্টিয়ারদের প্রাণবন্ত অংশগ্রহণে রাজধানী ঢাকায় বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ইয়েস বাংলাদেশ ও অপরাজেয় বাংলাদেশের আয়োজনে অনুষ্ঠিত হয়ে গেলো যুব নেতৃবৃন্দদের পলিসি এবং কোড অফ কন্ডাক্ট (আচরণবিধি) বিষয়ক ২দিন ব্যাপী কর্মশালা।

প্লান ইন্টারন্যাশনাল এর সহযোগিতায় শনিবার সকাল থেকে আদাবর ইউএসটি সেন্টারে শুরু হওয়া উক্ত কর্মশালা আনুষ্ঠানিকভাবে শেষ হয় রবিবারে। কর্মশালার শুরুতেই জেলা পর্যায়ে যে যুব নেতৃবৃন্দরা ইতিবাচক পরিবর্তনের এ্যাম্বাসেডর হিসেবে স্বার্থহীনভাবে কাজ করে যাচ্ছে তাদের উদ্দেশ্যে স্বাগত বক্তব্য ও কর্মশালার লক্ষ্য উদ্দেশ্য তুলে ধরেন ইয়েস বাংলাদেশের নির্বাহী পরিচালক শামিম আহমেদ।

পরবর্তীতে যুবদের ইতিবাচক কাজে অনুপ্রাণিত করণের মাধ্যমে একজন ভাল লিডার হওয়ার যোগ্যতাসমূহ তুলে ধরে প্রকল্পের বিভিন্ন পলিসি সম্পর্কে ধারণা প্রদান, দক্ষতা উন্নয়নে করণীয় এবং ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা নিয়ে সেশন পরিচালনা করেন ওয়াই মুভস্ প্রকল্পের ক্যাপাসিটি বিল্ডিং কো-অর্ডিনেটর অপরাজেয় বাংলাদেশের তৌহিদুল ইসলাম। কর্মশালায় মুক্ত আলোচনায় নিজেদের জেলার শিশু ও যুব নেতৃত্ব বিকাশে আরো কিভাবে কার্যকরী ভূমিকা রাখা যায় সে বিষয়ে জেলা ভলেন্টিয়ারদের মাঝে নানা গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে কথা বলেন বগুড়া থেকে সঞ্জু রায়, হবিগঞ্জের রাজিব চৌধুরী, চট্টগ্রামের আহসান উল্লাহ হাসান, জয়পুরহাটের সালেহুর রহমান সজীব, রাঙ্গামাটির ইকবাল হোসেন, বরগুনা থেকে জাহিদ হোসেন, কুড়িগ্রাম থেকে নূরনবী, জামালপুুরের মুুুশফিক হাসান, ময়মনসিংহের সানজানা আফরোজ পপি, ঝিনাইদহের তামান্না জাহান, নেত্রকোণার আলমগীর হোসেন প্রমুখ।

কর্মশালায় যুব নেতৃবৃন্দদের সেফ গার্ডিং পলিসি সম্পর্কে অবহিতকরণ সেশন পরিচালনা করেন ইয়েস বাংলাদেশের সেফ গার্ডিং ফোকাল পারসন ফাহমিদা হক নিশি এবং যেকোন কর্মসূচি পরবর্তী সুষ্ঠুভাবে বিল তৈরি এবং রিপোর্টিং নিয়ে কথা বলেন ইয়েস বিডির এ্যাকাউন্টস্ অফিসার নুসরাত দিবা। ২দিন ব্যাপী কর্মশালা শেষে ওয়াই মুভস প্রকল্পের অবশিষ্ট কার্যক্রম বাস্তবায়নে করণীয় নানা দিক-নির্দেশনা প্রদান ও যুব নেতৃবৃন্দদের অনুপ্রেরণা প্রদানের মাধ্যমে কর্মশালায় সমাপনী বক্তব্য রাখেন ওয়াই মুভস প্রকল্পের প্রজেক্ট ম্যানেজার অপরাজেয় বাংলাদেশের ওয়াহিদ নেওয়াজ।

কর্মশালায় এসময় অন্যান্যদের মাঝে আরো উপস্থিত ছিলেন ইয়েস বাংলাদেশের সাধারণ সম্পাদক শোভন শাহরিয়ার, ইয়েস বিডির সেন্ট্রাল ইয়ূথ ভলেন্টিয়ার জাহিদ হোসেন, মাইশা মোস্তাকিম প্রমুখ। উল্লেখ্য, ইয়েস বাংলাদেশ দেশের ৪০টি জেলায় জাতিসংঘ শিশু অধিকার সনদ বাস্তবায়নের মাধ্যমে শিশু অধিকার প্রতিষ্ঠা, শিশু ও যুব নেতৃত্ব বিকাশে ইতিবাচক সাফল্যের ধারাবাহিকতায় কাজ করে যাচ্ছে।

এছাড়াও ওয়াই মুভস প্রকল্পের মাধ্যমে জনগুরুত্বপূর্ণ বেশ কিছু সুনির্দিষ্ট বিষয়ে ইয়েস বিডি ৪০টি জেলায় সফলতার সাথে কাজ করে যাচ্ছে। 

মন্তব্য

আরও দেখুন

নতুন যুগ টিভি