বগুড়ায় গরুর দুধ দোহানো নিয়ে দ্বন্দ্বে একজন নিহত

সর্বমোট পঠিত : 28 বার
জুম ইন জুম আউট পরে পড়ুন প্রিন্ট

শাজাহানপুর থানার ওসি আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, ঘটনার পরেই স্থানীয়রা মোহনের মা রিভা রানীকে আটক করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছে। তাকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে এবং মোহন পলাতক রয়েছেন। তাকে গ্রেপ্তারে পুলিশী অভিযান চলছে।


বগুড়ার শাজাহানপুরে পূর্ব শত্রুতার জেরে গরুর দুধ দোহানো নিয়ে নতুন করে দ্বন্দ্বে সৃষ্ট মারপিটে নীলকান্ত নামে একজন নিহতের অভিযোগ উঠেছে। বুধবার সকাল ১০ টার দিকে উপজেলার আশেকপুর হিন্দুপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় রিভা রানী নামে এক নারীকে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে। ৫৫ বছরের নীলকান্ত হিন্দুপাড়ার মৃত ভবানীকান্তের ছেলে। তিনি কৃষিকাজ করতেন।

এসব তথ্য নিশ্চিত করেন শাজাহানপুর থানার এসআই রেজাউল করিম রেজা।

স্বজনদের বরাতে তিনি জানান, নীলকান্তের সঙ্গে তার প্রতিবেশী মোহনের পূর্বশত্রুতা ছিল। বুধবার সকাল ৮টার দিকে নীলকান্ত নিজের গরুর দুধ দোহন করছিলেন। এ সময় মোহন গরুর পিছনে যান। এতে গরুটি ভয় পেয়ে লাফ দিলে বেশ কিছু দুধ পড়ে যায়।

এ নিয়ে দু জনের মধ্যে বাক-বিতণ্ডা বাঁধে। পরে ১০ টার দিকে ওই ঝগড়ার জেরে মোহন লাঠি জাতীয় কোনো কিছু দিয়ে নীলকান্তের মাথায় আঘাত করেন। এতে নীলকান্ত অসুস্থ হয়ে পড়লে স্বজনরা শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। কিন্তু সেখানকার চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এসআই রেজাউল করিম বলেন, সুরতহালে নীলকান্তের বাম চোখের ভ্রুর উপরের অংশে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। একটু কেটেও গেছে। লাঠি জাতীয় কিছুর আঘাতে এমনটি হয়েছে। তবে আঘাত করা বস্তু সম্পর্কে এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

পুলিশ জানায়, এ ঘটনায় নীলকান্তের স্ত্রী চায়না রাণী বাদী হয়ে দুজনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। আসামি দু জন হলেন, রিভা রাণী ও তার ছেলে শ্রী মোহন।

শাজাহানপুর থানার ওসি আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, ঘটনার পরেই স্থানীয়রা মোহনের মা রিভা রানীকে আটক করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছে। তাকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে এবং মোহন পলাতক রয়েছেন। তাকে গ্রেপ্তারে পুলিশী অভিযান চলছে।

মন্তব্য

আরও দেখুন

নতুন যুগ টিভি