সশরীরে রিভিউ ক্লাস চান জগন্নাথের শিক্ষার্থীরা

সশরীরে রিভিউ ক্লাস চান জগন্নাথের শিক্ষার্থীরা
সর্বমোট পঠিত : 82 বার
জুম ইন জুম আউট পরে পড়ুন প্রিন্ট

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা অনলাইনে রিভিউ ক্লাসে আগ্রহী না। তারা সশরীরে ক্লাস ও পরীক্ষায় অংশ নিতে চান। আটকে থাকা পরীক্ষা সশরীরে জুনের শেষে কিংবা জুলাইয়ের প্রথমে নেয়ার পরিকল্পনা বিশ্ববিদ্যালয়ের। এর আগে অনলাইনে রিভিউ ক্লাস হতে পারে । শিক্ষার্থীরা বলছেন, তারা আর অনলাইনে ক্লাস করতে আগ্রহী নন। সশরীরে ক্লাসের সুযোগ-সুবিধাগুলো অনলাইন ক্লাসে পাওয়া যায় না। রিভিউ ক্লাস সশরীরে ক্যাম্পাসে নেয়া উচিত।

বিভিন্ন বর্ষের আটকে থাকা পরীক্ষাগুলো কীভাবে হবে, পরীক্ষা কখন হবে এ সম্পর্কিত সিদ্ধান্তগুলো নেয়ার জন্য আগামী ৮ জুন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য একটি সাধারণ সভা ডেকেছেন। সেখানে উপস্থিত থাকবেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিন, বিভিন্ন বিভাগের চেয়ারম্যানসহ সংশ্লিষ্টরা। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের আটকে থাকা পরীক্ষাগুলো নেয়ার আগে ১ সপ্তাহ থেকে ২ সপ্তাহ রিভিউ ক্লাস নেয়ার কথা রয়েছে। ক্লাসগুলো অনলাইনে না নিয়ে, স্বাস্থ্যবিধি মেনে ক্যাম্পাসে নেয়ার দাবি জানাচ্ছেন শিক্ষার্থীরা। গণিত বিভাগের ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী অনুপম মল্লিক আদিত্য বলেন, ‘যদি পূর্বের অনলাইন ক্লাসের ব্যর্থতাস্বরূপ রিভিউ ক্লাস নেয়া হয়, তবে সেই রিভিউ ক্লাস আবার অনলাইনে কেন। অনলাইনে তো মোটামুটি স্যারদের কোর্সগুলো সবই কমপ্লিট, কিন্তু শিক্ষার্থীরা কতটুকু পেরেছে। যদি রিভিউ ক্লাসগুলো অনলাইনে না নিয়ে সশরীরে নেয়া হয় তবে শিক্ষার্থীরা কোর্সগুলোর সারমর্ম একটু হলেও বুঝতে পারবে।’ গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী মাহমুদুল আমিন টনি বলেন, ‘রিভিউ ক্লাসগুলা অফলাইনে হলে পরীক্ষায় স্টুডেন্টদের আত্মবিশ্বাস বাড়বে। পরীক্ষা যদি সশরীরে হয় তাহলে রিভিউ ক্লাসও সশরীরে নেয়া দরকার।

‘রিভিউ ক্লাস অনলাইনে নেয়া হলে কোর্স সম্পর্কিত নানা প্রশ্ন থেকেই যাবে। বিশেষ করে ২০১৯-২০ বর্ষের শিক্ষার্থীদের কোর্স ও পরীক্ষার ব্যাপারে ধারণা কম। আর অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার দরুন প্রশ্নগুলো থেকেই যাবে। তাই রিভিউ ক্লাসগুলো অফলাইনে নেয়া উচিত।’ সমাজকর্ম বিভাগের ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী সুশান্তিকা ভৌমিক লতা বলেন, ‘রিভিউ ক্লাসগুলো অবশ্যই অফলাইনে নিতে হবে। কারণ আমাদের প্রবলেমগুলো অনলাইনে বুঝতে অনেক সমস্যা হয়। অনলাইনে সবাই সব বুঝতেও পারে না। তাই রিভিউ ক্লাসগুলো আমাদের জন্য অফলাইন হলে খুবই ভালো হবে।’

ক্লাস পরীক্ষার বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন ও রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. অরণ কুমার গোস্বামী বলেন, ‌‘আমরা ক্লাস ও পরীক্ষা নেয়ার জন্য প্রস্তুত আছি। পরীক্ষা সশরীরে নেয়া হবে। অনলাইনে নেয়া সম্ভব নয়। ক্লাস-পরীক্ষার বিষয়ে কাল (মঙ্গলবার) মিটিংয়ে সিদ্ধান্ত হবে।'

ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. এ কে এম মনিরুজ্জামান নিউজবাংলাকে বলেন, ‘মঙ্গলবার আমাদের মিটিংয়ে ক্লাস ও পরীক্ষার বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আসবে। তবে সেমিস্টার ফাইনাল পরীক্ষার সম্ভাব্য ডেট হতে পারে ১ জুলাই। পরীক্ষার আগে ২ সপ্তাহ অনলাইনে রিভিউ ক্লাস হবে। যেহেতু আমাদের ক্লাসগুলো অনেক আগে শেষ হয়েছে। মাঝখানে অনেক দিন বন্ধ ছিল তাই রিভিউ ক্লাস নেয়ার পরিকল্পনা আছে।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার অধ্যাপক ড. কামালউদ্দীন আহমদ বলেন, ‘রিভিউ ক্লাস নিতেই হবে, তা না হলে শিক্ষার্থীরা কীভাবে পরীক্ষা দেবে। আর এটা তো আগের সিদ্ধান্ত। রিভিউ ক্লাস এক সপ্তাহ তো নিতেই হবে, তবে দুই সপ্তাহ হলে তো ভালো।’

গত বছর ২ জুলাই সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমানের সভাপতিত্বে ট্রেজারার, অনুষদের ডিন, ইনস্টিটিউটের পরিচালক, রেজিস্ট্রার, বিভাগীয় চেয়ারম্যান, প্রক্টর, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক ও লাইব্রেরিয়ানের সমন্বয়ে এক অনলাইন মিটিংয়ে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে অনলাইনে ক্লাস নেয়ার বিষয়ে ৯টি সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

এর মধ্যে একটি ছিল ক্যাম্পাসে ক্লাস শুরু হলে রিফ্রেশমেন্ট ক্লাসের জন্য তিন সপ্তাহ সময় দেয়া হবে। এ সময় ব্যবহারিক ক্লাসও নেয়া হবে।

মন্তব্য

আরও দেখুন

নতুন যুগ টিভি