ঝিনাইগাতীতে অবৈধ ভাবে গোদামজাত করায় ৫৬ বস্তা ইউরিয়া ও ডিএপি সার জব্দ

সর্বমোট পঠিত : 55 বার
জুম ইন জুম আউট পরে পড়ুন প্রিন্ট

এ ব্যাপারে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. হুমায়ুন দিলদার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের মতামত নিয়ে প্রয়োজনী পদক্ষেপ গ্রহন করা হবে।


শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে অবৈধ ভাবে গোদামজাত করায় উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিপ্তরের বিশেষ অভিযানে ৩২ বস্তা ইউরিয়া ও ২৪ বস্তা ডিএপি সার জব্দ করা হয়। ১১ আগষ্ট বৃহস্পতিবার বিকেলে এ অভিযান পরিচালনা করে এসব সার জব্দ করা হয়।

উপজেলা কৃষি অধিদপ্তর সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার নলকুড়া ইউনিয়নের গারোকোনা বাজারের বিএডিসি’র ডিলার মো. কাউসার মিয়ার বসতবাড়ীর গোডাউনে ৩২বস্তা ইউরিয়া এবং একই বাজারের আব্দুর রহিমের গোডাউনে ২৪ বস্তা বিএডিসি’র ডিএপি সার বিক্রির উদ্দেশে সংরক্ষণ করা হয়। যাহা সার ব্যবস্থাপনা আইনে সর্ম্পূণ পরিপন্থী।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. হুমায়ুন দিলদার আকস্মিক অভিযান চালিয়ে এসব সার জব্দ করা হয়। পরে এসব সার চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহনের পূর্ব পর্যন্ত সময়ে স্ব-স্ব ব্যক্তির কাছেই জিম্মা রাখা হয়। অপরদিকে একই বাজারের বিএডিসি’র ডিলার ইসমাইল হোসেন কাজলের দোকানে রক্ষিত ১ শত ৩৭ বস্তা ডিএপি ও এমপিও সার সংগ্রহের ক্রয় রশিদ দেখাতে ব্যর্থ হওয়ায় পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত ওইসব সার বিক্রয় করতে নিষেধ করা হয়। এসময় উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা ফরহাদ হোসেন সহ স্থানীয় সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন।

এ ব্যাপারে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. হুমায়ুন দিলদার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের মতামত নিয়ে প্রয়োজনী পদক্ষেপ গ্রহন করা হবে।

মন্তব্য

আরও দেখুন

নতুন যুগ টিভি