চলন্ত বাসে ডাকাতি-ধর্ষণের মূলহোতাসহ গ্রেপ্তার ১০

সর্বমোট পঠিত : 61 বার
জুম ইন জুম আউট পরে পড়ুন প্রিন্ট

টাঙ্গাইলের মধুপুরে ঈগল পরিবহন নামের একটি নৈশকোচে যাত্রীবেশে ডাকাতি ও এক নারীকে গণধর্ষণের ঘটনায় ডাকাতির মূল পরিকল্পনাকারীসহ ডাকাত চক্রের ১০ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব।


টাঙ্গাইলের মধুপুরে ঈগল পরিবহন নামের একটি নৈশকোচে যাত্রীবেশে ডাকাতি ও এক নারীকে গণধর্ষণের ঘটনায় ডাকাতির মূল পরিকল্পনাকারীসহ ডাকাত চক্রের ১০ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব।

গ্রেফতার মূল পরিকল্পনাকারীর নাম রতন হোসেন। গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে আজ রবিবার রাতে ঢাকা, গাজীপুর ও সিরাজগঞ্জ এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

সংবাদমাধ্যমকে এ খবর নিশ্চিত করেছেন র‍্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন।

তিনি বলেন, এ বিষয়ে আগামীকাল সোমবার দুপুরে কারওয়ান বাজার র‍্যাব মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলনে বিস্তারিত জানানো হবে।

এর আগে গত ২ আগস্ট দিবাগত রাতে কুষ্টিয়ার দৌলতপুর থেকে ঈগল পরিবহনের একটি বাস ৩০-৩৫ জন যাত্রী নিয়ে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে আসার পথে ওই ডাকাতি ও গণধর্ষণের ঘটনা ঘটে।

এরপর ৪ আগস্ট ভোরে টাঙ্গাইল শহরের নতুন বাস টার্মিনাল এলাকা থেকে মূলহোতা রাজা মিয়াকে গ্রেফতার করে টাঙ্গাইল জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। পরদিন ভোরে গাজীপুরের কালিয়াকৈর ও সোহাগপল্লী থেকে মো. আউয়াল (৩০) ও নুরনবী (২৬) নামের আরও দুই আসামিকে গ্রেফতার করে পুলিশ। গ্রেফতার তিনজনই মাদকাসক্ত বলে দাবি পুলিশের। এর মধ্যে পুলিশের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে রাজা মিয়াকে পাঁচদিনের রিমান্ডে পাঠিয়েছেন আদালত।

মন্তব্য

আরও দেখুন

নতুন যুগ টিভি