তাইওয়ান ঘিরে চীনের সামরিক মহড়া

সর্বমোট পঠিত : 46 বার
জুম ইন জুম আউট পরে পড়ুন প্রিন্ট

মার্কিন কংগ্রেসের নিম্নকক্ষের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির তাইওয়ান সফরের একদিন পরই দ্বীপটিকে ঘিরে ছয়টি এলাকায় নজিরবিহীন ‘লাইভ-ফায়ার’ সামরিক মহড়া শুরু করেছে চীন। খবর বিবিসির।


মার্কিন কংগ্রেসের নিম্নকক্ষের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির তাইওয়ান সফরের একদিন পরই দ্বীপটিকে ঘিরে ছয়টি এলাকায় নজিরবিহীন ‘লাইভ-ফায়ার’ সামরিক মহড়া শুরু করেছে চীন। খবর বিবিসির।

নিরাপত্তা বিশ্লেষকদের মতে চীনের নজিরবিহীন এ সামরিক মহড়া যে কোনও সময় সংঘাতে রূপ নিতে পারে।

চীনের স্থানীয় সময় দুপুর ১২টায় শুরু হওয়া মহড়াটি তাইওয়ানের আশপাশের সাগরে এ পর্যন্ত চীনের সবচেয়ে বড় সামরিক তৎপরতা।
তাইওয়ানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রনালয় বলেছে, উত্তর-পূর্ব এবং দক্ষিণ-পশ্চিম তাইওয়ানের কাছে পানিতে একাধিক ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছে চীন। এর আগে চীন হুশিয়ারি দিয়ে বলেছিলো তাইপেকে ন্যান্সি পেলোসির সফরের জন্য কড়া মূল্য দিতে হবে।

সূচী অনুযায়ী মহড়াটি শুরু হওয়ার কিছুক্ষণের মধ্যে চীনের রাষ্ট্রায়ত্ত গণমাধ্যম সিসিটিভি জানায়, মহড়া শুরু হয়েছে এবং শেষ হবে স্থানীয় সময় রোববার দুপুর ১২টায়। মহড়া চলাকালে তাইওয়ানের আশপাশের জল ও আকাশসীমায় তাজা গুলিগোলা ব্যবহার করা হবে বলে জানিয়েছে তারা।

তাইওয়ানের কর্মকর্তারা বলেছেন, এই মহড়া জাতিসংঘের নিয়মের লঙ্ঘন, তাইওয়ানের ভূখণ্ডগত এলাকায় আক্রমণ এবং আকাশ ও সাগরে অভাব চলাচলের প্রতি সরাসরি চ্যালেঞ্জ।

চীন এক সামরিক বিবৃতিতে জানিয়েছে যে তাইওয়ানের পূর্বাঞ্চল থেকে সাগরে একাধিক ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করা হয়েছে। এবং সে সমস্ত ক্ষেপণাস্ত্র তাদের লক্ষ্যবস্তুতে নিখুঁতভাবে আঘাত করেছে।

তাইওয়ানের ক্ষমতাসীন ডেমোক্রেটিক প্রগেসিভ পার্টি (ডিপিপি) বলেছে, চীন ব্যস্ততম আন্তর্জাতিক জলপথ ও আকাশপথে মহড়াটি পরিচালনা করছে এবং এটি ‘দায়িত্বজ্ঞানহীন, অনুচিত আচরণ’।

তাইওয়ানের মন্ত্রিসভার মুখপাত্র মহড়াটির তীব্র নিন্দা করেছেন আর তাদের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও প্রেসিডেন্ট দপ্তরের ওয়েবসাইটে হ্যাকররা হামলা চালিয়েছে বলে জানিয়েছেন।

বেশ কয়েকটি এলাকায় মহড়াটি তাইওয়ান দ্বীপের ১২ নটিক্যাল মাইলের মধ্যে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। চীন ওই এলাকার স্থিতাবস্থা পরিবর্তন করতে চাইছে বলে তাইওয়ান অভিযোগ করেছে। তাইওয়ানকে নিজেদের বিচ্ছিন্ন প্রদেশ বলে বিবেচনা করে চীন।

মন্তব্য

আরও দেখুন

নতুন যুগ টিভি