জেলা জুড়েই সয়াবিনসহ ভোজ্য তেল মজুদ জব্দে অভিযান।। জব্দ প্রায় ১৫ হাজার লিটার

সর্বমোট পঠিত : 65 বার
জুম ইন জুম আউট পরে পড়ুন প্রিন্ট

সারাদেশের ন্যায় চলমান অভিযানের অংশ হিসেবে এবার শেরপুর জেলা জুড়েই শুরু হয়েছে ভোজ্য তেল জব্দে অভিযান। এতে করে পৃথক পৃৃথক অভিযানে অন্তত ১৫ হাজার লিটার মজুদকৃত সয়াবিন জব্দ করা হয়েছে।

সারাদেশের ন্যায় চলমান অভিযানের অংশ হিসেবে এবার শেরপুর জেলা জুড়েই শুরু হয়েছে ভোজ্য তেল জব্দে অভিযান। এতে করে পৃথক পৃৃথক অভিযানে অন্তত ১৫ হাজার লিটার মজুদকৃত সয়াবিন জব্দ করা হয়েছে।

এর মধ্যে শেরপুর সদরের গাজীরখামার বাজারের সাথী ষ্টোর নামে একটি খুচরা বিক্রেতার দুইটি গোডাউন ও বাসা থেকে ৫ হাজার লিটার, ঝিনাইগাতীর তিনানী বাজারের সততা স্টোর ও নাজমুল এন্ড ব্রাদারস প্রায় ৪ হাজার লিটার, শ্রীবরদী পৌর এলাকার হাজী ট্রেডার্সে আনুমানিক ১ হাজার লিটার , নালিতাবাড়ীর রাজনগর টেংরাখালি এলাকার দুই সহোদর ব্যবসায়ীর কাছে প্রায় ৫ হাজার লিটার ভোজ্য তেল জব্দ করা হয়েছে ।

সদর উপজেলার গাজীর খামার বাজারের সাথী ষ্টোর নামে একটি খুচরা বিক্রেতার দুইটি গোডাউন ও বাসা থেকে এ সয়াবিনগুলো জব্দ করে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। এসময় অবৈধভাবে তেল মজুদ ও বেশী দামে বিক্রির দায়ের ওই দোকানীকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার সকালে এ দোকানে অভিযান চালায় ভ্রাম্যমান আদালত। অভিযানে সাথী ষ্টোরের মালিক আবু সায়েম সাথী’র বাসা ও দুইটি গুদাম থেকে কার্টুন ভর্তি বিভিন্ন ব্র্যান্ডের প্রায় পাঁচ হাজার লিটার সয়াবিন তেল পাওয়া যায়। মজুতকৃত তেলগুলোর বোতলে তিন মাসে আগের মূল্য লেখা রয়েছে। তবে মূল্যের সিল কৌশলে উঠিয়ে নতুন মূল্য নির্ধারণ করে প্রতি লিটার সয়াবিন দুই’শ থেকে দুই’শ দশ টাকা মূল্যে বিক্রি করছেন ওই দোকানী।
জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের শেরপুরের সহকারী পরিচালক রুবেল আহমেদ এ অভিযান পরিচালনা করেন।

বৃহস্পতিবার বিকালে ঝিনাইগাতী উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফারুক আল মাসুদ ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) জয়নাল আবেদিনের নেতৃত্বে একটি আভিযানিক দল উপজেলার তিনানী বাজারের সততা স্টোর ও নাজমুল এন্ড ব্রাদারস ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালায় এসময় এই দুই প্রতিষ্ঠান থেকে প্রায় ৪ হাজার লিটার মজুদকৃত সয়াবিন জব্দ করা হয় এবং অবৈধভাবে মজুদ করার কারণে ভোক্তা অধিকার আইন লংঘনের দায়ে দুই প্রতিষ্ঠানকে ৫০ হাজার টাকা করে মোট ১ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

এদিকে অভিযানের অংশ হিসেবে শ্রীবরদীর পৌরশহর এলাকায় হাজী ট্রেডার্স নামে এক ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে অভিযান চালিয়ে একই অভিযোগে বিশ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এসময় এ প্রতিষ্ঠান থেকে আনুমানিক ১ হাজার লিটার ভোজ্য তেল জব্দ করা হয়। শ্রীবরদী উপজেলার সহকারী কশিনার (ভূমি) আতাউর রহমান এ অভিযান পরিচালনা করেন।

অন্যদিকে গতকাল নালিতাবাড়ী উপজেলার রাজনগর টেংরাখালি এলাকার রাজনগর গ্রামে ব্যবসায়ী এনামুলের বাড়িতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হেলেনা পারভীন। অভিযানকালে এনামুলের নামে আমদানীকৃত কার্টন ভর্তি প্রায় ৫ হাজার লিটার বোতলজাত ভোজ্যতেল মজুদ অবস্থায় পাওয়া যায়। যে ব্যবসা মূলত এনামুলের সহোদর দুই ভাই আনোয়ার হোসেন ও নজরুল ইসলাম সেলিম পরিচালনা করেন। পরে ভোজ্যতেল মজুদ করার অভিযোগে আনোয়ার হোসেন ও নজরুল ইসলামকে ৭০ হাজার টাকা অর্থদন্ড করা হয়। এছাড়াও মজুদকৃত ওই তেল পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে খোলা বাজারে বিক্রির নির্দেশ প্রদান করা হয়।

মন্তব্য

আরও দেখুন

নতুন যুগ টিভি