স্ত্রীকে আটকে রেখে একাধিকবার গর্ভপাত

স্ত্রীকে আটকে রেখে একাধিকবার গর্ভপাত
সর্বমোট পঠিত : 30 বার
জুম ইন জুম আউট পরে পড়ুন প্রিন্ট

পুত্রসন্তান না হওয়ায় স্ত্রীকে দোষারোপ করে দেড় বছর আটক রেখে যৌন নির্যাতন ও ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে এক স্বামীর বিরুদ্ধে। ভারতের মহারাষ্ট্রের সোলাপুর জেলায় এ ঘটনা ঘটে। সোলাপুর পুলিশ বৃহস্পতিবার জানিয়েছে, ৪১ বছর বয়সী ওই নারীকে একটি কক্ষ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। এ সময় ওই বাড়ি থেকে এ দম্পতির তিনটি কন্যাশিশুকেও উদ্ধার করা হয়। উদ্ধার হওয়া তিন শিশুর বয়স আট থেকে ১৪ বছরের মধ্যে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদনে এমনটি বলা হয়েছে। সোলাপুর জেলার পান্ধারপুর শহরের জেন্ডে গুল্লি এলাকায় একটি বাড়িতে অভিযান চালিয়ে গত সোমবার ওই গৃহবধূ ও তিনটি কন্যাশিশুকে উদ্ধার করা হয়।ওই স্বামীর বিরুদ্ধে ইন্ডিয়ান পেনাল কোডের (আইপিসি) ধর্ষণবিষয়ক ধারা ৩৭৬সহ একাধিক ধারায় করা মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়।


প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ওই নারী তদন্তকারী কর্মকর্তার কাছে অভিযোগ করেন, ছেলেসন্তান জন্ম দিতে ব্যর্থ হওয়ায় দেড় বছরেরও বেশি সময় ধরে তাকে জোর করে বাড়ির একটি কক্ষে আটকে রাখা হয়। এ সময় তার স্বামী তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণসহ যৌন হয়রানি করেছেন। এ সময় একাধিকবার গর্ভপাত করাতে বাধ্য করেছেন তাকে।


বিষয়টি প্রকাশ্যে আসে যখন ওই ভুক্তভোগী নারী একটি জরুরি এসওএস বার্তা ছুড়ে দিতে সফল হন। পান্ধারপুর সিটি পুলিশের নির্ভয় স্কোয়াড বার্তাটি পাওয়ার পর ওই বাড়িটির ওপর নজরদারি বসায়। এর পরেই তারা অভিযান পরিচালনা করে।

মন্তব্য

আরও দেখুন

নতুন যুগ টিভি