সাইবার সিকিউরিটি বিশেষজ্ঞ হতে চান?

সাইবার সিকিউরিটি বিশেষজ্ঞ হতে চান?
সর্বমোট পঠিত : 13 বার
জুম ইন জুম আউট পরে পড়ুন প্রিন্ট

সাইবার সিকিউরিটি বিশেষজ্ঞ হিসেবে আপনাকে নিয়োগ দেয়া হতে পারে বেশ কয়েক ধরনের কাজে। এর মধ্যে পেনিট্রেশন টেস্টার, চিফ ইনফরমেশন সিকিউরিটি অফিসার (সিআইএসও), সিকিউরিটি ইঞ্জিনিয়ার, ইনসিডেন্ট রেসপন্ডার, সিকিউরিটি সফটওয়্যার ডেভেলপার, সিকিউরিটি অডিটর, সিকিউরিটি কনসালটেন্টসহ আরও অনেক পদ। করোনাভাইরাস মহামারিতে বেড়েছে ইন্টারনেট বা সাইবার নির্ভরতা। এ সময় তাই বেড়েছে অনলাইন অপরাধীর সংখ্যা। অনলাইন বা সাইবার স্পেসকে নিরাপদ করতে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে বেড়েছে সাইবার সিকিউরিটি বিশেষজ্ঞ নিয়োগও।

বর্তমান সময়ে পেশা হিসেবে সাইবার সিকিউরিটি নিয়ে কাজ আপনাকে করে তুলতে পারে অন্যদের চেয়ে ভিন্ন। অবশ্য ভিন্ন পেশার জন্য আপনাকে অবশ্যই দক্ষ হয়ে উঠতে হবে। কীভাবে সাইবার নিরাপত্তায় দক্ষতা অর্জন, এই খাতে পেশা গড়ার আদ্যোপান্ত নিয়েই এই আয়োজন।

কেন বাড়ছে সাইবার নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞদের চাহিদা বেশি নয়, বছর দুয়েক আগের ইন্টারনেট দুনিয়ার সঙ্গে এখনকার পার্থক্য খোঁজার চেষ্টা করুন। ইন্টারনেট দুনিয়ার খোঁজ যারা রাখেন তারা জানেন, র‍্যানসামওয়্যারের আক্রমণ কতটা বেড়েছে। ওয়ানাক্রাই, পেতায়সহ কয়েকটি ম্যালওয়্যার ছড়িয়ে সারা বিশ্ব থেকে হ্যাকাররা বিপুর পরিমাণ ডেটা হাতিয়ে নিয়েছে। গ্রাহকদের ডেটা সুরক্ষা দিতে ও কোম্পানির নেটওয়ার্ক সুরক্ষায় তাই বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান, ইন্ডাস্ট্রি এখন সাইবার বিশেষজ্ঞ নিয়োগ দিচ্ছে।


যেসব পদে নিয়োগ হয় সাইবার

সিকিউরিটি বিশেষজ্ঞ হিসেবে আপনাকে নিয়োগ দেয়া হতে পারে বেশ কয়েক ধরনের কাজে। এর মধ্যে পেনিট্রেশন টেস্টার, চিফ ইনফরমেশন সিকিউরিটি অফিসার (সিআইএসও), সিকিউরিটি ইঞ্জিনিয়ার, ইনসিডেন্ট রেসপন্ডার, সিকিউরিটি সফটওয়্যার ডেভেলপার, সিকিউরিটি অডিটর, সিকিউরিটি কনসালটেন্টসহ আরও অনেক পদ।


কতটা দক্ষতা প্রয়োজন

দক্ষতার বিষয়টি নির্ভর করে আপনার পদ বা পদবির ওপর। সেখানে মূলে থাকে প্রতিষ্ঠানের চাহিদা। তবে সাধারণভাবে একজনকে পেনিট্রেশন টেস্টিং, রিস্ক অ্যানালিসিস এবং সিকিউরিটি অ্যাসেসমেন্ট সম্পর্কে ভালো জানাশোনা থাকতে হবে।


তার থাকতে হবে সার্টিফাইড ইন রিস্ক অ্যান্ড ইনফরমেশন সিস্টেম কন্ট্রোল বা সিআরআইএসসি, সার্টিফাইড ইনফরমেশন সিকিউরিটি ম্যানেজার (সিআইএসএম) এবং সার্টিফাইড ইনফরমেশন সিস্টেম সিকিউরিটি প্রফেশনাল (সিআইএসএসপি) সনদ।


যারা নিয়োগ দেয়


বিশ্বে এখন সব ধরনের প্রতিষ্ঠানই সাইবার সিকিউরিটি নিয়ে খুবই সতর্ক। কারণ, সবাই চায় নিজেদের এবং গ্রাহকদের ডেটার সুরক্ষা দিতে।


গত কয়েক বছরের হিসাবে দেখা যাচ্ছে, বিশ্বে সবচেয়ে বেশি সাইবার বিশেষজ্ঞ নিয়োগ দিয়েছে অ্যাপল, লকহেড মার্টিন, জেনারেল মটরস, ক্যাপিটাল ওয়ান এবং সিসকো।


অন্যদিকে করোনাভাইরাস মহামারিতে সবচেয়ে গুরুত্ব পাচ্ছে স্বাস্থ্যসেবা খাত। এ খাতে এখন গুরুত্ব সর্বাধিক। পাশাপাশি শিক্ষা খাতেও সাইবার সিকিউরিটির চাহিদা বাড়ছে। ফলে এই খাতগুলোতে সাইবার নিরাপত্তায় দক্ষদের জন্য চাকরির বাজার তৈরি হচ্ছে।

বেতন কত

সাইবার বিষয়ে বিশেষজ্ঞদের বেতন-ভাতা নির্ভর করে তার পজিশনের ওপর। যেমন, যুক্তরাষ্ট্রে মাঝারি মানের একজন কর্মীর বেতন হয় বছরে এক লাখ মার্কিন ডলার। যুক্তরাষ্ট্রের ব্যুরো অব লেবার স্ট্যাটিসস্টিক জানাচ্ছে, মধ্যম সারির সিআইএসও (CISO) পজিশনের একজনের বার্ষিক বেতন হয় গড়ে ২ লাখ ২২ হাজার ডলার। এটা অবশ্য দেশভেদে কম-বেশি হয়। এমনকি নিউইয়র্ক ও সান ফ্যান্সিসকোতে এই বেতন আরও বেশি হয়।

ইন্টারভিউয়ে মুখোমুখি

পোস্ট এবংআপনার অবস্থান থেকেই প্রশ্ন করবেন ভাইভা বোর্ডের সদস্যরা। সে ক্ষেত্রে আপনি যদি এই খাতে নতুন হন, তাহলে মুখোমুখি হতে হবে টেকনিক্যাল প্রশ্নের।


আপনি বিষটিতে কতটা দক্ষ সেটিই বোঝার চেষ্টা করবেন তারা। অন্যদিকে আপনি যদি আরও পরিপক্ব বা অভিজ্ঞ হন তাহলে প্রশ্নের ধরন বদলে যাবে। তখন টেকনিক্যালের চেয়ে বেশি লিডারশিপ নিয়ে প্রশ্নের সম্মুখীন হবেন।

দক্ষতার জন্য রিসোর্স পাবেন অনলাইনে

সাইবার সিকিউরিটি নিয়ে দক্ষতা চাইলে অবশ্যই আপনাকে সুনির্দিষ্ট বিষয়ে নজর দিতে হবে। তাই আপনার দক্ষতার জন্য রিসোর্স পেতে দেশীয় কিছু সাইটে ঢুঁ মারতে পারেন। আর আন্তর্জাতিকভাবে আপনি আইএসএসিএ (ISACA), আইএসসি২ (ISC2), আইএসএসএ (ISSA) এবং দ্য সসান্স ইনস্টিটিউটের মতো আন্তর্জাতিক সংগঠনে সাইবার নিরাপত্তা নিয়ে রিসোর্স পাবেন। এখন অবশ্য দেশে ও বিদেশের কিছু বিশ্ববিদ্যালয় সাইবার সিকিউরিটি নিয়ে পড়াশোনা করাচ্ছে। অনলাইনেও সাইবার সিকিরিউরিটি নিয়ে বিনা মূল্যের ও পেইড কোর্স পাবেন। সেখান থেকে সাইবার নিরাপত্তায় কিছু ডিগ্রিও পেতে পারেন।

মন্তব্য

আরও দেখুন

নতুন যুগ টিভি