বিয়ের গেটে টাকা নিয়ে বিরোধ, সংঘর্ষে আহত ১০

বিয়ের গেটে টাকা নিয়ে বিরোধ, সংঘর্ষে আহত ১০
সর্বমোট পঠিত : 5 বার
জুম ইন জুম আউট পরে পড়ুন প্রিন্ট

কনের বাড়ি থেকে আত্মীয়রা এসেছিলেন মেয়ে আর নতুন জামাইকে নিয়ে বাড়ি ফেরার জন্য কিন্তু ফিরতে হলো মারামারি করে। পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলার বড়বাইশদিয়া ইউনিয়নের মধুখালী গ্রামে শুক্রবার বিকেলে এ ঘটনা ঘটে। বিয়েবাড়ির গেট ধরা নিয়ে বর ও কনে পক্ষের সংঘর্ষে অন্তত ১০ জন আহত হয়েছে। বরের বড় ভাই আলমগীর হোসেন নিউজবাংলাকে জানান, দুই সপ্তাহ আগে তার ভাই বাবুল ফকির ওরফে সোয়েবের সঙ্গে পাশের মৌডুবি ইউনিয়নের মাঝের দেওর গ্রামের অনামিকা আক্তারের বিয়ে হয়। বুধবার বরপক্ষ গিয়ে কনেকে তাদের বাড়িতে আনেন। শুক্রবার কনের বাড়ির লোকজন আসে বরের বাড়িতে।

আলমগীরের অভিযোগ, বুধবার কনের বাড়ির গেটে তাদের ২ হাজার টাকা দিতে হয়েছে। শুক্রবার তারাও সেই পরিমাণ টাকা আশা করলেও পেয়েছেন ১ হাজার ৮০০ টাকা। ফেরার সময় তাদের আরও টাকা দেয়া হবে বলে আশ্বস্ত করা হয়।  ই কথা অনুযায়ী খাওয়া-দাওয়া শেষে ফেরার পথে বরের বাড়ির লোকজন আবার তাদের গেট আটকায়। সেখানে কথাকাটাকাটি থেকে শুরু হয় সংঘর্ষ। দুই পক্ষের লোকই লাঠিসোটা নিয়ে এক অপরকে ধাওয়া দেন। 

শুক্রবার সেখানে উপস্থিত ছিলেন ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সদস্য সোনা মিয়া। তিনি জানান, কনেযাত্রীর ৩০ জন আসার কথা থাকলেও এসেছিল ৫৪ জন। এ নিয়ে বরপক্ষ এমনিতেই মনক্ষুণ্ন ছিল। তারপর গেট ধরায় প্রত্যাশা অনুযায়ী টাকা না পেয়ে শুরু হয় সংঘর্ষ। শেষে নিজেদের ভুল বোঝাবুঝির মীমাংসা হয়। বর ও কনেকে নিয়ে কনেযাত্রী বাড়ি ফিরেছেন।স এ সংঘর্ষের বিষয়ে কনের ভাইয়ের সঙ্গে মোবাইলে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন ধরেননি। রাঙ্গাবালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দেওয়ান জগলুল হাসান বলেন, ‘লোকমুখে ঘটনা শুনেছি। তবে কোনো পক্ষই থানায় অভিযোগ করেনি।’

মন্তব্য

আরও দেখুন

নতুন যুগ টিভি