মা-বোনদের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন মুরাদ হাসান

ডা. মুরাদ হাসান
সর্বমোট পঠিত : 57 বার
জুম ইন জুম আউট পরে পড়ুন প্রিন্ট

মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে ই-মেইলে পদত্যাগপত্র পাঠান তিনি। এখন সেটি নিয়ম অনুযায়ী মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে পাঠানো হবে। এরপর সেটি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পাঠানো হবে। সেই প্রক্রিয়াই চলছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

ক্ষমা চেয়েছেন তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান। তিনি বলেছেন, আমি যদি কোনো ভুল করে থাকি বা আমার কথায় মা-বোনদের মনে কষ্ট দিয়ে থাকি, তাহলে আমাকে ক্ষমা করে দেবেন।

মঙ্গলবার দুপুরে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে এক স্ট্যাটাসে এ কথা বলেন মুরাদ হাসান। এর আগে মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগ করেন তিনি।

স্ট্যাটাসে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সব সিদ্ধান্ত আজীবন মেনে নেবেন বলেও জানান মুরাদ হাসান।

মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে ই-মেইলে পদত্যাগপত্র পাঠান তিনি। এখন সেটি নিয়ম অনুযায়ী মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে পাঠানো হবে। এরপর সেটি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পাঠানো হবে।  সেই প্রক্রিয়াই চলছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

আমি যদি কোন ভুল করে থাকি অথবা আমার কথায় মা-বোনদের মনে কষ্ট দিয়ে থাকি তাহলে আমাকে ক্ষমা করে দিবেন। মাননীয়...

Posted by Md. Murad Hassan on Monday, 6 December 2021

মঙ্গলবার নিজের দপ্তরেও যাননি মুরাদ হাসান। তিনি ঢাকায় নেই। চট্টগ্রামে অবস্থান করছেন বলে জানা গেছে।

সোমবারও মন্ত্রণালয়ে যাননি তিনি। সোমবার বিকেল সাড়ে ৪টায় সেগুনবাগিচায় শিশু কল্যাণ কেন্দ্রের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে তার যোগ দেওয়ার পূর্বনির্ধারিত কর্মসূচি ছিল, সেখানেও যাননি।

সোমবার থেকে প্রতিমন্ত্রী সাংবাদিকদের এড়িয়ে চলছেন। চেষ্টা করেও মুরাদ হাসানের সঙ্গে ফোনে কথা বলা সম্ভব হয়নি। তথ্য মন্ত্রণালয় সূত্র নিশ্চিত করেছে, মুরাদ হাসান ঢাকায় নেই। সোমবার বিকেলে তিনি চট্টগ্রামের উদ্দেশে যাত্রা করেন।

এর আগে সোমবার মুরাদ হাসানকে মঙ্গলবারের মধ্যে মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগ করতে নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গত কয়েকদিন ধরেই বিতর্কিত মন্তব্য ও চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহির সঙ্গে ফোনালাপ ফাঁস হওয়ার পর এ নির্দেশ আসে।

মন্তব্য

আরও দেখুন

নতুন যুগ টিভি