বগুড়া মাদলায় ঘোড়ায় চেপে ব্যতিক্রমী নির্বাচনী প্রচারণায় চেয়ারম্যান প্রার্থী আতিক

বগুড়া মাদলায় ঘোড়ায় চেপে ব্যতিক্রমী নির্বাচনী প্রচারণায় চেয়ারম্যান প্রার্থী আতিক
সর্বমোট পঠিত : 8 বার
জুম ইন জুম আউট পরে পড়ুন প্রিন্ট

আসন্ন নির্বাচন প্রসঙ্গে ঘোড়া মার্কার প্রার্থী আতিকুর রহমান জানান, অত্র ইউনিয়নে ১৪ হাজার ৮’শ ৫০ জন ভোটার আছেন। আগামী ২৮শে নভেম্বর ইউনিয়নের ৯টি কেন্দ্রে ভোট অনুষ্ঠিত হবে। সুষ্ঠু ও অবাধ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলে তিনি বিজয় নিয়ে শতভাগ প্রত্যাশী শুধু তিনি প্রশাসনের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন। তিনি আরো বলেন, দল, মত নির্বিশেষে তিনি সাধারণ মানুষের জন্যে কাজ করে গেছেন এবং ভবিষ্যতেও করবেন। মাদলা ইউপি কে পুরো জেলায় একটি আধুনিক ও ডিজিটাল ইউপি হিসেবে গড়া এবং তার অসমাপ্ত কাজগুলো পূর্ণ করার জন্যে তিনি ভোটারসহ সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।

 আসন্ন ২৮শে নভেম্বর বগুড়ার শাজাহানপুর উপজেলার ২নং মাদলা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন কে সামনে রেখে প্রচারণায় ব্যস্ত সকল প্রার্থীরা কিন্তু এরই মাঝে ঘোড়ায় চেপে ব্যতিক্রমী নির্বাচনী প্রচারণায় সকলকে ঐক্যবদ্ধ করেছেন ঘোড়া মার্কার প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান মো: আতিকুর রহমান (আতিক)। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডে অবিরাম পুনরায় জয়ের লক্ষ্যে ছুটে চলেছেন এই প্রার্থী যেখানে ভোটারদের মাঝেও দেখা গেছে দারুণ উৎসবমুখর ও ইতিবাচক মনোভাব।

মাদলার বিভিন্ন এলাকায় সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, এইবার মাদলা ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন মোট ৬ জন প্রার্থী যথাক্রমে: মো: আতিকুর রহমান (বর্তমান চেয়ারম্যান), আব্দুল বারী মন্ডল, আমিনুল ইসলাম সোহাগ, নজরুল ইসলাম মন্ডল, শামীম জায়দার এবং এ.কে.এম সাইফুল ইসলাম। সকল প্রার্থীই নিজেদের মতো করে চালাচ্ছেন জোর প্রচারণা কিন্তু এরই মাঝে বিগত ৫ বছরে বর্তমান চেয়ারম্যান আতিকের যে উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড রয়েছে তার জন্যে প্রচারণায় বেশ ভাল সাড়া পাচ্ছেন ঘোড়া মার্কার প্রার্থী আতিক। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এলাকার এক কৃষক জানান, গত ৫ বছরে আতিক চেয়ারম্যান যে উন্নয়ন এলাকায় করেছে স্বাধীনতার পর থেকে তা কেউ করেনি। মাদলার মানুষের দীর্ঘদিনের চাওয়া দড়িনন্দ গ্রামের ৩কি.মি রাস্তার কার্পেটিং এর কাজ তিনি করে দিয়েছেন যার আগের অবস্থা একদম বেহাল ছিল। শুধু তাই নয় এলাকার বিভিন্ন মানুষের সাথে কথা বলে জানা যায়, আতিক চেয়ারম্যানের দক্ষ নেতৃত্বেই মাদলার ৮টি উল্লেখযোগ্য রাস্তা যথাক্রমে শশ্মানকান্দি, শুরিমারা, লক্ষিকোলা, কাজীপাড়া থেকে বলদীপালান, রামচন্দ্রপুর থেকে শশ্মানকান্দি, নিশ্চিন্তপুর থেকে নন্দগ্রাম, শেরকোল থেকে খোট্টাপাড়া, মালিপাড়া থেকে শেরকোল রাস্তার কাপের্টিং কাজ, শেরকোল এলাকায় ২টি, চাঁচাইতারাতে ১টি, দড়িনন্দগ্রামে ১টি ব্রিজসহ অর্ধশতাধিক কালভার্ট নির্মাণ ও প্রায় শতাধিক ড্রেনের সংস্কারকরণসহ নিশ্চিত করেছেন হাজারো মানুষের সরকারি বিভিন্ন ভাতা কার্ডের সুবিধা। শুধু তাই নয় বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বেঞ্চ, শিক্ষা উপকরণ সরবরাহসহ ক্রীড়াঙ্গণ ও সাংস্কৃতিক অঙ্গণের বিকাশেও রয়েছে চেয়ারম্যান আতিকের অসংখ্য ইতিবাচক কাজের উদাহরণ। করোনাকালীন সময়েও সরকারি ও বেসরকারি নানা সহযোগিতার পাশাপাশি ব্যক্তি উদ্যোগে মানুষের ঘরে ঘরে পৌঁছে দিয়েছেন খাদ্যসামগ্রী ও বিভিন্ন স্বাস্থ্যসুরক্ষা সামগ্রীসহ নানা উপকরণ যাতে এলাকায় ব্যাপক প্রশংসিত হয়েছেন আতিকুর রহমান।

আসন্ন নির্বাচন প্রসঙ্গে ঘোড়া মার্কার প্রার্থী আতিকুর রহমান জানান, অত্র ইউনিয়নে ১৪ হাজার ৮’শ ৫০ জন ভোটার আছেন। আগামী ২৮শে নভেম্বর ইউনিয়নের ৯টি কেন্দ্রে ভোট অনুষ্ঠিত হবে। সুষ্ঠু ও অবাধ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলে তিনি বিজয় নিয়ে শতভাগ প্রত্যাশী শুধু তিনি প্রশাসনের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন। তিনি আরো বলেন, দল, মত নির্বিশেষে তিনি সাধারণ মানুষের জন্যে কাজ করে গেছেন এবং ভবিষ্যতেও করবেন। মাদলা ইউপি কে পুরো জেলায় একটি আধুনিক ও ডিজিটাল ইউপি হিসেবে গড়া এবং তার অসমাপ্ত কাজগুলো পূর্ণ করার জন্যে তিনি ভোটারসহ সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।

মন্তব্য

আরও দেখুন

নতুন যুগ টিভি