কোটি কোটি টাকা উপার্জন করেছেন রাজ কুন্দ্রা

লকডাউনেই রমরমা রাজের পর্নোগ্রাফি ব্যবসার? লন্ডনবাসী শ্যালকের জন্য বানাতেন পর্ন ছবি

সংগৃহীত
সর্বমোট পঠিত : 101 বার
জুম ইন জুম আউট পরে পড়ুন প্রিন্ট

২০১৯-এর ফেব্রুয়ারিতে রাজ ‘আর্মস প্রাইম মিডিয়া প্রাইভেট লিমিটেড’ নামে একটি সংস্থা খোলেন। তার ছ’মাস পরেই সংস্থাটি ‘হটশট’ নামে একটি মুঠোফোন অ্যাপ তৈরি করে।

মাত্র দেড় বছরে পর্ন ব্যবসা থেকে কোটি কোটি টাকা উপার্জন করেছেন রাজ কুন্দ্রা। তদন্তে নেমে এমনই তথ্য জানতে পেরেছে মুম্বই প্রশাসন। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের কাছে প্রশাসনের দাবি, লকডাউন শাপে বর হয়েছিল অভিযুক্তের কাছে। ওই সময়েই রাজের পর্নোগ্রাফির ব্যবসা ফুলেফেঁপে ওঠে। নিজেকে আড়ালে রাখতে প্রচুর মাথা খাটিয়েছিলেন রাজ। পুলিশ জানিয়েছে, ২০১৯-এর ফেব্রুয়ারিতে রাজ ‘আর্মস প্রাইম মিডিয়া প্রাইভেট লিমিটেড’ নামে একটি সংস্থা খোলেন। তার ছ’মাস পরেই সংস্থাটি ‘হটশট’ নামে একটি মুঠোফোন অ্যাপ তৈরি করে। পরে এই অ্যাপটি পুলিশের খাতায় ‘পর্ন অ্যাপ’ নামে চিহ্নিত হতেই পর্ন ভিডিয়ো পাঠানোর পদ্ধতি বদলে ফেলেন রাজ। সন্দেহ এড়াতে উইট্রান্সফারের মাধ্যমে ভিডিয়ো পাঠাতে থাকেন।

যুগ্ম নগরপাল (অপরাধ শাখা) মিলিন্দ ভরাম্বে আরও জানিয়েছেন, পুরো ঘটনার নেপথ্যে রয়েছেন রাজের আমেরিকাবাসী শ্যালক প্রদীপ বক্সী। শ্যালকের লন্ডনের পর্নোগ্রাফি সংস্থা কেনরিন লিমিটেডকে সাহায্য করতেই দেশে পর্ন হাব খোলার পরিকল্পনা করেছিলেন অভিযুক্ত। পুলিশের নজরে পড়লে কী করে পুরো বিষয়টি ধামাচাপা দেবেন, তার জন্য ‘বলি ফেম’ নামে আরও একটি পরিকল্পনা ছিল রাজের।

সৌজন্যে: আনন্দ বাজার পত্রিকা

মন্তব্য

আরও দেখুন

নতুন যুগ টিভি