বিষধর কোবরা ভাড়া করে স্ত্রীকে ছোবল খাইয়ে খুন করল যুবক

বিষধর কোবরা ভাড়া করে স্ত্রীকে খুন
সর্বমোট পঠিত : 91 বার
জুম ইন জুম আউট পরে পড়ুন প্রিন্ট

পর পর দুইবার সাপের কামড়ের ঘটনায় উথরার বাবা এবং ভাইয়ের সন্দেহ হয়। তারা এ বিষয়ে পুলিশের দ্বারস্থ হন। পুলিশ তদন্ত করে আসল রহস্য উদঘাটন করে।

বিষধর গোখরা সাপের ছোবল খাইয়ে নিজের স্ত্রীকে হত্যার ঘটনায় অভিযুক্ত হয়েছেন এক যুবক। তার বিরুদ্ধে গত বছরের মে মাসে স্ত্রীকে অদ্ভুত এ উপায়ে হত্যার অভিযোগ সম্প্রতি প্রমাণিত হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের কেরালার কল্লাম জেলায়। ভারতের সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্থান টাইমসের খবরে বলা হয়, সুরাজ নামে ওই যুবক ২৫ বছর বয়সী স্ত্রী উথরাকে খুন করেছেন বিষধর সাপের ছোবল খাইয়ে। পুলিশের তদন্তে উঠে এসেছে এই তথ্য। আদালত এ ঘটনাকে বিরলের মধ্যে বিরলতম ঘটনা আখ্যা দিয়ে সুরাজকে কারাদণ্ড দিয়েছেন। এই মামলায় সুরাজের ফাঁসির সম্ভাবনাও রয়েছে।

জানা যায়, ২০২০ সালের প্রথম দিকে সম্পত্তির লোভে সুরাজ একটি ভাইপার জাতীয় সাপ ভাড়া করে তার কামড় খাওয়ায় উথরাকে। ২৫ বছর বয়সী উথরা হাসপাতালে ৫১ দিন লড়াই করে জীবন ফিরে পান, কিন্তু শারীরিকভাবে অত্যন্ত দুর্বল হয়ে পড়েন। কার্যসিদ্ধি হয়নি দেখে আবারও একটি গোখরা ভাড়া করেন সুরাজ। এই গোখরার কামড়েই ২০২০ সালের মে মাসে জীবন হারান উথরা।

এদিকে, পর পর দুইবার সাপের কামড়ের ঘটনায় উথরার বাবা এবং ভাইয়ের সন্দেহ হয়। তারা এ বিষয়ে পুলিশের দ্বারস্থ হন। পুলিশ তদন্ত করে আসল রহস্য উদঘাটন করে। বিচারক তার রায়ে পুলিশের প্রশংসা করে বলেছেন, পুলিশ এই তদন্তে যেভাবে অগ্রসর হয়েছে তা প্রশংসার দাবি রাখে। এমনকি সাপ ভাড়া দিত যে ব্যক্তি, সেই সুরেশকেও খুঁজে বের করার মধ্যে পুলিশের কৃতিত্ব আছে।

মন্তব্য

আরও দেখুন

নতুন যুগ টিভি