বগুড়া মাটিডালি সুন্নতী জামে মসজিদে হাজারো ধর্মপ্রাণ মুসল্লীদের সমাগম

সুন্নতী জামে মসজিদে হাজারো ধর্মপ্রাণ মুসল্লীদের সমাগম
সর্বমোট পঠিত : 71 বার
জুম ইন জুম আউট পরে পড়ুন প্রিন্ট

উদ্বোধনের পর হতেই মসজিদে প্রাণচঞ্চলভাবে মুসল্লীদের ভীড় প্রসঙ্গে প্রতিষ্ঠাতা ইমাম এমএমডি. আশরাফ আলীমুল্লহ্ সিদ্দীকীর সাথে কথা বললে তিনি জানান, সকল প্রশংসা মহান সৃষ্টিকর্তার। উদ্বোধনের পর থেকেই মানুষের জনসমাগম দেখার মতো ছিল। সর্বশেষ জুম্মাতেও হাজারো মানুষ উৎফুল্লভাবে এখানে নামাজ আদায় করেছেন। তিনি বলেন বগুড়ার মাটিডালীর এই নতুন জায়াগায় পর্যায়ক্রমে সিদ্দীক্বিয়া সুন্নিয়া মাদ্রাসা, এতিম খানা ও মসজিদের জন্য বহুতল ভবন নির্মান করা হবে। তিনি শুধু সকলকে ইতিবাচক সহযোগিতা করার আহ্বান জানান।

বগুড়া মাটিডালিতে গত সপ্তাহের শুক্রবারে উদ্বোধন হওয়া সুন্নতী জামে মসজিদে প্রতিদিন সমাগম ঘটছে হাজারো ধর্মপ্রাণ মুসল্লীদের যা আরো বেশি পরিলক্ষিত হয় শেষ শুক্রবারের জুম্মার নামাজে। এদিকে নতুন উদ্বোধন হওয়া এই মসজিদে মুসল্লীদের ভীড়ে এলাকাবাসীও অত্যন্ত উৎফুল্ল ও আনন্দিত।

জানা যায়, গত ১ অক্টোবর শুক্রবার মাটিডালি এলাকার হাজারো ধর্মপ্রাণ মুসল্লীদের নামাজ আদায়ের লক্ষ্যে দীর্ঘদিনের চাওয়া এসওএস হারম্যান মেইনার স্কুলের পাশে স্থাপিত এই মসজিদের প্রধান অতিথি হিসেবে উদ্বোধন করেন বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগ এর সাধারণ সম্পাদক রাগেবুল আহসান রিপু। উদ্বোধনী বক্তব্যে রিপু বলেছিলেন, উক্ত সুন্নতী জামে মসজিদের প্রতিষ্ঠাতা ইমাম মুহাম্মাদ আলহাজ্ব এমএমডি. আশরাফ আলীমুল্লহ্ সিদ্দীকী সর্বশেষ কুবা মসজিদে ইমাম ও খতীব হিসেবে সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদের বিরুদ্ধে যা বলেছিলেন তা অত্যন্ত শিক্ষনীয়। ইমাম সাহেবের লক্ষাধিক অনুসারী থাকা স্বর্ত্তেও সর্বদা শান্তির পক্ষে তিনি ধৈর্য্যের পরিচয় দিয়েছেন।

উনি কোন সময় উগ্রতার পথ বেছে নেননি কারণ ইসলাম সর্বদা শান্তির ধর্ম। ইমাম হিসেবে তিনি শান্তিপূর্ণভাবে কঠিন সময়টা মোকাবেলা করেছেন। বগুড়ার কাটনারপাড়া ও শিব্বাটির প্রতিটি মানুষ এটা মনে রাখবে, যে উনি কত সুন্দর ও চমৎকারভাবে কুবা মসজিদ হতে প্রস্থান করেছিলেন। তিনি তার জন্য ইমাম আশরাফ আলীমুল্লহ্ কে মোবারকবাদ জ্ঞাপন করেন এবং সর্বদা সকল ভাল কাজে পাশে থাকারও প্রতিশ্রুতি দেন। উদ্বোধণী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বগুড়া পৌরসভার সাবেক প্যানেল মেয়র-২ আমিনুল ফরিদ।

উদ্বোধনের পর হতেই মসজিদে প্রাণচঞ্চলভাবে মুসল্লীদের ভীড় প্রসঙ্গে প্রতিষ্ঠাতা ইমাম এমএমডি. আশরাফ আলীমুল্লহ্ সিদ্দীকীর সাথে কথা বললে তিনি জানান, সকল প্রশংসা মহান সৃষ্টিকর্তার। উদ্বোধনের পর থেকেই মানুষের জনসমাগম দেখার মতো ছিল। সর্বশেষ জুম্মাতেও হাজারো মানুষ উৎফুল্লভাবে এখানে নামাজ আদায় করেছেন। তিনি বলেন বগুড়ার মাটিডালীর এই নতুন জায়াগায় পর্যায়ক্রমে সিদ্দীক্বিয়া সুন্নিয়া মাদ্রাসা, এতিম খানা ও মসজিদের জন্য বহুতল ভবন নির্মান করা হবে। তিনি শুধু সকলকে ইতিবাচক সহযোগিতা করার আহ্বান জানান।

মন্তব্য

আরও দেখুন

নতুন যুগ টিভি