গাইবান্ধায় মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে বিবাদী মুক্তার হোসনের স্ত্রী দোলার

গাইবান্ধায় মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে
সর্বমোট পঠিত : 52 বার
জুম ইন জুম আউট পরে পড়ুন প্রিন্ট

গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ী উপজেলার বরকতপুর গ্রামে বাদী আম্বিয়া বেগমের জমিজমা সংক্রান্তে মনোমালিন্যের জেরধরে ও আম্বিয়া বেগমের শিশু পুত্র আকাশ প্রধানকে অপহরনের অভিযোগ তুলে বিবাদী মুক্তার হোসেনের বিরুদ্ধে এজাহার দায়ের করেছেন আম্বিয়া বেগম। এতে করে সুষ্ঠ তদন্ত ভিত্তিক মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবী করে সংবাদ সম্মেলন করেছে বিবাদী মুক্তার হোসেনের স্ত্রী দোলা বেগম ও তার পরিবার।

গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ী উপজেলার বরকতপুর গ্রামে বাদী আম্বিয়া বেগমের জমিজমা সংক্রান্তে মনোমালিন্যের জেরধরে ও আম্বিয়া বেগমের শিশু পুত্র আকাশ প্রধানকে অপহরনের অভিযোগ তুলে বিবাদী মুক্তার হোসেনের বিরুদ্ধে এজাহার দায়ের করেছেন আম্বিয়া বেগম। এতে করে সুষ্ঠ তদন্ত ভিত্তিক মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবী করে সংবাদ সম্মেলন করেছে বিবাদী মুক্তার হোসেনের স্ত্রী দোলা বেগম ও তার পরিবার।

সংবাদ সম্মেলন ও পলাশবাড়ী থানার এজাহার সূত্রে জানা গেছে- পলাশবাড়ী উপজেলার বরকতপুর গ্রামের শাহারুল ইসলাম স্ত্রী আম্বিয়া বেগম দুই শিশু পুত্রকে নিয়ে শাহারুলের গ্রামের বাড়িতে তার মা মোছা: শেফালী বেগমসহ বসবাস করে। শাহারুলের জমিজমা নিয়ে শাহারুলের স্ত্রী আম্বিয়ার সাথে একই গ্রামের মৃত মোহাম্মদ আলীর ছেলে বিবাদী মুক্তার হোসেনের সাথে জায়গা জমি নিয়ে বিরোধ থাকায় গত ৮ থেকে ৯ মাস আগে পলাশবাড়ী থানায় একটি জিডি করেন শাহারুলের স্ত্রী আম্বিয়া বেগম। চলতি সালের ২৮ আগষ্ট দুপুর ১ টার সময় মুক্তার আলীর বাকপ্রতিপ্রন্ধী ছেলে মোজাহিদ মিয়া (৯) এর সাথে বাদী আম্বিয়ার ছেলে আকাশ প্রধান (১১) খেলাধুলা করাকালীন আকাশ মোজাহিদ মিয়াকে মারপিট করলে বিবাদী মুক্তার হোসেন বাসা থেকে বের হয়ে মারামারি থামায়। যা এলাকাবাসী স্বাক্ষী রয়েছে। পরে ওইদিন সন্ধ্যায় আম্বিয়ার পুত্র মাগরিবের নামাজ পড়ার উদ্দেশ্যে বাসা থেকে বের হয়ে আর বাসায় ফিরে আসেনি। ঘটনাটি ভিন্ন খাতে চাপাতে মুক্তার হোসেন ও তার ভাই আইয়ুব আলীর বিরুদ্ধে অপহরন এর অভিযোগ তুলে মামলা করেছে বাদী আম্বিয়া। যা মিথ্যা, ভিত্তিহীন ও বানোয়াট। বিবাদী মুক্তার হোসেন স্ত্রী দোলা বেগম মুক্তার হোসেন ও তার ভাই আইয়ুব আলীর বিরুদ্ধে পুলিশ প্রশাসনের নিকট মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবী জানিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ও আম্বিয়ার শিশুপুত্র উদ্ধারের জন্য দোওয়া করেছেন।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন- মুক্তার হোসেনের বড় ভাই আইয়ুব আলীর স্ত্রী লুৎফা বেগম, মুক্তার ও আইয়ুব আলীর মা সুফিয়া বেগম, ও বাড়ির কাজের মহিলা আলেয়া বেগম।

মন্তব্য

আরও দেখুন

নতুন যুগ টিভি