থ্রিলার ম্যাচে জিতলো মুস্তাফিজের রাজস্থান

জিতলো মুস্তাফিজের রাজস্থান
সর্বমোট পঠিত : 72 বার
জুম ইন জুম আউট পরে পড়ুন প্রিন্ট

শনিবার আবুধাবিতে টস হেরে আগে ফিল্ডিংয়ে নেমেছিল রাজস্থান রয়্যালস। এদিন ব্যাট হাতে জ্বলে উঠেন চেন্নাই ওপেনার ঋতুরাজ গায়কোয়াড়। শুরুর দিকে একটু রয়েসয়ে খেললেও পরে ঝড় তুলেন মুস্তাফিজদের ওপর।

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) চতুর্দশ আসরের ৪৭তম ম্যাচে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষ দল চেন্নাই সুপার কিংসকে ৭ উইকেটে হারিয়েছে রাজস্থান রয়্যালস।

শনিবার আবুধাবিতে টস হেরে আগে ফিল্ডিংয়ে নেমেছিল রাজস্থান রয়্যালস। এদিন ব্যাট হাতে জ্বলে উঠেন চেন্নাই ওপেনার ঋতুরাজ গায়কোয়াড়। শুরুর দিকে একটু রয়েসয়ে খেললেও পরে ঝড় তুলেন মুস্তাফিজদের ওপর।

৯ চার ও ৫ ছক্কায় ৬০ বল খেলে ১০১ রানে অপরাজিত থাকেন ঋতুরাজ। দল হারলেও তাই তাকেই বেছে নেওয়া হয়েছে ম্যাচসেরা ক্রিকেটার হিসেবে। পুরো আসরে দুর্দান্ত বল করা মুস্তাফিজও এদিন দিশা খুঁজে পাননি।

৪ ওভারে ৫১ রান খরচ করে উইকেটশূন্য ছিলেন বাংলাদেশি এই পেসার। ৪ ওভারে ৩৯ রান দিয়ে তিন উইকেট নেন রাহুল তেওয়াটিয়া। নির্ধারিত ২০ ওভার ব্যাট করে ৪ উইকেট হারিয়ে ১৮৯ রান তুলে চেন্নাই।

জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নেমে রাজস্থানকে উড়ন্ত সূচনা এনে দেন দুই ওপেনার এভিন লুইস ও যশস্বী জাইসওয়াল। লুইস ১২ বলে ২৭ ও জাইসওয়াল ২১ বলে ৫০ রান করে সাজঘরে ফেরেন। এরপর হাল ধরেন স্যাঞ্জু স্যামসন ও শিভম দুবে।

দুবে মারকুটে ব্যাটিং চালিয়ে গেলেও স্যামসন ছিলেন সাবধানী। ২৪ বলে ২৮ রান করে স্যামসন সাজঘরে ফিরলেও দুবে কোনো বিপদ ঘটতে দেননি। গ্লেন ফিলিপসকে সঙ্গে নিয়ে দুবে জয় নিশ্চিত করেন ১৫ বল ও ৭ উইকেট হাতে রেখে। ৪টি করে চার-ছক্কা হাঁকানো দুবে ৪২ বলে ৬৪ রান করে অপরাজিত থাকেন। ৮ বলে ১৪ রান করে অপরাজিত থাকেন ফিলিপস।

চেন্নাইয়ের পক্ষে শার্দূল ঠাকুর শিকার করেন দুটি উইকেট। এই জয়ে শেষ চারের লড়াইয়ে টিকে রইলেন মুস্তাফিজ, স্যামসনরা।

সংক্ষিপ্ত স্কোর
টস : রাজস্থান রয়্যালস
চেন্নাই সুপার কিংস : ১৮৯/৪ (২০ ওভার)
গাইকোয়াদ ১০১*, জাদেজা ৩২*
তেভাটিয়া ৩৯/৩, সাকারিয়া ৩১/১, মুস্তাফিজ ৫১/০

রাজস্থান রয়্যালস : ১৯০/৩ (১৭.৩ ওভার)
দুবে ৬৪*, জাইসওয়াল ৫০, স্যামসন ২৮
শার্দূল ৩০/২, আসিফ ১৮/১
ফল : রাজস্থান রয়্যালস ৭ উইকেটে জয়ী।

মন্তব্য

আরও দেখুন

নতুন যুগ টিভি