অর্থ সংকটে কোচকে বরখাস্তও করতে পারছে না বার্সা

কোম্যান
সর্বমোট পঠিত : 95 বার
জুম ইন জুম আউট পরে পড়ুন প্রিন্ট

কোম্যানের বদলে এখন বার্সার নজর বেলজিয়ামের কোচ রবার্তো মার্টিনেজের প্রতি। এখন বার্সা যদি মার্টিনেজকে আনতে চায় তখন বেলজিয়াম ফুটবল ফেডারেশনকে মার্টিনেজের হয়ে জরিমানা দিতে হবে। এখানেও আছে আর্থিক বিষয়

স্প্যানিশ লা লিগার নতুন মৌসুমের প্রথম চার ম্যাচ খেলে আট পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের অষ্টমস্থানে আছে বার্সেলোনা। ১৯৮৮ সালের পর লা লিগায় যা তাদের সবচেয়ে বাজে শুরু।
এমন অবস্থার প্রেক্ষিতে বার্সা কোচ রোনাল্ড কোম্যানকে সরিয়ে দেয়ার জোর দাবী উঠেছে। বার্সার কর্তারাও চাইছে ডাচ এ কোচকে সরিয়ে দিতে। কিন্তু চাইলও তারা এ কাজটি করতে পারছে না, আর্থিক সংকটের কারণে। কোম্যানকে বরখাস্ত করতে হলেও প্রায় ১০ মিলিয়ন ইউরো দরকার পরবে বার্সার। খবর ডেইলি মেইল।

কোম্যানকে বরখাস্ত করতে হলে বার্সাকে ১০ মিলিয়ন ইউরো খরচ করতে হবে কারণ তাকে চুক্তির টাকা দিতে হবে, সঙ্গে জরিমানা দিতে হবে। কোম্যান নেদারল্যান্ডসের কোচের দায়িত্ব ছেড়ে বার্সায় এসেছিলেন। চুক্তির মেয়াদ শেষ হওয়ার আগে চাকরি ছাড়ায় তাকে ডাচ ফেডারেশনকে জরিমানা দিতে হয়েছিল। এ টাকাটিও বার্সাকেই বহন করতে হবে।

কোম্যানের বদলে এখন বার্সার নজর বেলজিয়ামের কোচ রবার্তো মার্টিনেজের প্রতি। এখন বার্সা যদি মার্টিনেজকে আনতে চায় তখন বেলজিয়াম ফুটবল ফেডারেশনকে মার্টিনেজের হয়ে জরিমানা দিতে হবে। এখানেও আছে আর্থিক বিষয়

তবে বার্সা এত কিছুর দিকে তাকাবে না, যদি না কোম্যান দলের অবস্থার পরিবর্তন করতে না পারেন। তার কৌশল ও দল সাজানোর বিষয়টি নিয়েও অসন্তুষ্ট অনেকে। এখন এই সেপ্টেম্বর মাসে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ও লা লিগা মিলিয়ে আরো চারটি ম্যাচ খেলবে স্প্যানিশ জায়ান্টরা। এই চারটি ম্যাচই কোম্যানের জন্য শেষ পরীক্ষা। তিনি যদি বার্সেলোনাকে লা লিগার শিরোপার দৌড়ে বাঁচিয়ে রাখতে পারেন ও চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ভালো কিছু করতে পারেন তাহলেই বাঁচবে তার চাকরি।

মন্তব্য

আরও দেখুন

নতুন যুগ টিভি