করোনা

সাতক্ষীরায় ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ করোনা শনাক্ত ৫৯ শতাংশ

সাতক্ষীরায় ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ করোনা শনাক্ত ৫৯ শতাংশ
সর্বমোট পঠিত : 5 বার
জুম ইন জুম আউট পরে পড়ুন প্রিন্ট

সাতক্ষীরায় মঙ্গলবার ২৪ ঘণ্টায় এক দিনের হিসাবে সব থেকে বেশি করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ৫৮ দশমিক ৭২ শতাংশ। জেলার সিভিল সার্জন হুসাইন সাফায়েত জানান, মঙ্গলবার ২৪ ঘণ্টায় ১৮২টি নমুনা পরীক্ষায় ১০৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়। এ সংখ্যা সাতক্ষীরার এক দিনের শনাক্ত হিসেবে সর্বোচ্চ।

তিনি আরও জানান, ওই ২৪ ঘণ্টায় সাতক্ষীরা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে দুইজন ও সদর হাসপাতালে করোনা উপসর্গ নিয়ে দুইজন মারা গেছেন। এ নিয়ে জেলায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৪৯ জন। আর করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন ২৩৭ জন। মেডিক্যাল কলেজ, সদর হাসপাতাল ও বাড়িতে কোয়ারেন্টিন মিলিয়ে চিকিৎসাধীন ৫১৮ জন।


স্বাস্থ্য বিভাগের কাছে করোনা আক্রান্ত ভর্তিসংক্রান্ত সঠিক তথ্য সরবরাহ না করায় সাতক্ষীরা জেলা শহরের সিবি হাসপাতাল, ইসলামী ব্যাংক কমিউনিটি হাসপাতাল, বুশরা হাসপাতাল, হার্ট ফাউন্ডেশন ও ন্যাশনাল হাসপাতালকে নোটিশ দেয়া হয়েছে বলেও জানান সিভিল সার্জন।


এদিকে করোনা সংক্রমণ কমাতে জেলা প্রশাসন ঘোষিত সপ্তাহব্যাপী লকডাউনের পঞ্চম দিন বুধবারে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সাতক্ষীরা ৩৩ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নে ল আল মাহমুদ জানান, অবৈধ যাতায়াত রোধে সীমান্তে টহল জোরদার করা হয়েছে। মঙ্গলবার ২৪ ঘণ্টায় সাতক্ষীরার ভোমরা, তলুইগাছা ও মাদ্রা সীমান্তে ভারত থেকে অবৈধ পথে আসা ছয়জন বাংলাদেশি নাগরিক ও একজন পাচারকারীকে আটক করা হয়েছে।


লকডাউনের বাধানিষেধের কারণে শহরে পুলিশ চেকপোস্ট বসিয়ে চলাচল নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছে। সব গণপরিবহন বন্ধ রয়েছে। শুধু চলছে অত্যাবশ্যকীয় পণ্য বহনের কাজে নিয়োজিত যানবাহন। নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য কেনাবেচার জন্য দোকান খোলা থাকছে সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত। লকডাউনের মধ্যে ওষুধের ফার্মেসি, অ্যাম্বুলেন্স, হাসপাতাল, ক্লিনিক, বিদ্যুৎ, জ্বালানিসংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান খোলা রয়েছে।


বিভিন্ন স্থানে চেকপোস্ট বসিয়ে খুলনা ও যশোর যাতায়াতের পথ বন্ধ রাখা হয়েছে। ভোমরা স্থল বন্দরে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্য স্বাভাবিক রাখা হয়েছে। তবে ভারতীয় যানবাহনচালক ও হেলপাররা যাতে খোলামেলা ঘুরে বেড়াতে না পারেন, সে জন্য পুলিশ ও বিজিবির নজরদারি বাড়ানো হয়েছে।

মন্তব্য

আরও দেখুন

নতুন যুগ টিভি