পিটিয়ে জখম

মেয়ের শ্লীলতাহানি, বাধা দেয়ায় বাবাকে পিটিয়ে জখম

মেয়ের শ্লীলতাহানি, বাধা দেয়ায় বাবাকে পিটিয়ে জখম
সর্বমোট পঠিত : 6 বার
জুম ইন জুম আউট পরে পড়ুন প্রিন্ট

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে মেয়ের শ্লীলতাহানিতে বাধা দেয়ায় বাবাকে পিটিয়ে জখম করেছেন ঈমানী মিয়া নামের এক যুবক। এ ঘটনায় থানায় মামলা করা হয়েছে। আহত বাবা-মেয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। উপজেলার পতনউষা ইউনিয়নের লক্ষীপুর গ্রামের মুন্সিবাজার এলাকায় রোববার দুপুর ১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।


স্থানীয় লোকজনের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, গ্রামের ঈমানী মিয়া মেয়েটিকে বাড়ির পাশে পেয়ে টেনেহিঁচড়ে শ্লীলতাহানির চেষ্টা চালান। মেয়েটির বাবা বাধা দিতে গেলে তাকেও বেদম মারধর করা হয়। স্থানীয় লোকজন থানায় খবর দিলে পুলিশ এসে বাবা ও মেয়েকে উদ্ধার করে কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।


এ ঘটনায় মেয়ের বাবা কমলগঞ্জ থানায় অভিযোগ দিয়েছেন।


চিকিৎসাধীন অবস্থায় মেয়েটির বাবা নিউজবাংলাকে বলেন, ‘মুন্সিবাজারে ঝাড়ু দিয়ে সংসার চালাই। মেয়েটিকে বিয়ে দেয়ার পর স্বামী পাগল হয়ে যায়। মেয়েটি বিভিন্ন বাড়িতে কাজ করে সংসার চালায়। ছেলেটি এর আগেও কয়েকবার মেয়েকে লাঞ্ছিত করেছে, বিষয়টি এলাকার মানুষ জানে।’


তিনি বলেন, ‘মেয়েকে লাঞ্ছিত করা সময় বাধা দিলে সাইকেলে থাকা রোল দিয়ে আমাকে মেরে জখম করেছে। বিচারের জন্য থানায় মামলা করেছি।’


মেয়েটি নিউজবাংলাকে জানান, ‘স্বামী পাগল থাকায় বাবার বাড়িতে থেকে মানুষের কাজ করে সংসার চালাই। ঈমানী বার বার আমাকে লাঞ্ছিত করার চেষ্টা করেছে। গত রমজানেও সে আমার সাথে খারাপ ব্যবহার করেছে। আজও আমার শরীরের বিভিন্ন অংশে আঘাত করেছে, আমাকে মারার সময় বাবা দেখে এগিয়ে আসলে তাকেও মারধর করে।’


কমলগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক সিরাজুল নিউজবাংলাকে জানান, মেয়েটিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। তিনি মেয়েটিকে লাঞ্ছনা ও মারধরের অভিযোগ পেয়েছেন। এ ব্যাপারে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে বলে জানান পুলিশ কর্মকর্তা সিরাজুল।

মন্তব্য

আরও দেখুন

নতুন যুগ টিভি