হত্যা

ধীরাজ হত্যা: আরও দুই আসামি রিমান্ডে

ধীরাজ হত্যা: আরও দুই আসামি রিমান্ডে
সর্বমোট পঠিত : 5 বার
জুম ইন জুম আউট পরে পড়ুন প্রিন্ট

সিলেটের বালাগঞ্জ উপজেলার গহরপুরে ইটভাটার ব্যবস্থাপক ধীরাজ পাল হত্যা মামলায় আরও দুই আসামিকে ৩ দিনের রিমান্ডে পাঠিয়েছে আদালত। মুখ্য বিচারিক হাকিম কাওসার আহমদের ভার্চুয়াল আদালত সোমবার ট্রাক চালক ইকবাল হোসেন ও ইটভাটার নৈশপ্রহরী রাসেল আলীকে রিমান্ডে পাঠান। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা বালাগঞ্জ থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) পিংকু চন্দ্র দাশ নিউজবাংলাকে বলেন, ‘আমরা ৩ আসামির ১০ দিনের রিমান্ডের আবেদন করেছিলাম। এরমধ্যে ট্রাক চালক ইকবাল হোসেন ও ইটভাটার নৈশপ্রহরী রাসেল আলীকে ৩ দিনের রিমান্ডে পাঠিয়েছে আদালত।

‘অপর আসামি ট্রাক চালকের সহকারী তোফায়েল আহমদের বয়স ১৮ হয়নি বলে তার আইনজীবী দাবি করেছেন। ফলে আদালত তাকে রিমান্ডে দেয়নি। আমরা তার বয়সের বিষয়টি আবার যাছাই-বাছাই করে দেখব।’


বালাগঞ্জের গহরপুর এলাকার রতনপুর ইটভাটার ব্যবস্থাপক ধীরাজ পালকে গত ২৮ মে দুপুরে তার কর্মস্থলে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে দুর্বৃত্তরা। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।


পুলিশ জানায়, হামলার সময়ে ইটভাটা থেকে একটি ট্রাকে ইট তোলা হচ্ছিল। সেই ট্রাকের চালক ছিলেন ইকবাল হোসেন। সোমবার যাকে রিমান্ডে পাঠায় আদালত।


গত ৩১ মে ইটভাটার ব্যবসায়িক অংশীদার ও ক্যাশিয়ার মেরাজুল ইসলাম চৌধুরী, ইটভাটার সহকারী ব্যবস্থাপক সুহেদ আহমদ ও সিএনজি অটোরিকশা চালক রুবেলকে ৪ দিনের রিমান্ডে পাঠান আদালত। রিমান্ড শেষে বৃহস্পতিবার তাদের জেল হাজতে পাঠানো হয়।


রিমান্ডে নিয়ে ৩ জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলেও তারা হত্যার দায় স্বীকার করেনি বলে জানান তদন্ত কর্মকর্তা।


ধীরাজ পাল হত্যার পর ২৯ মে নিহতের বড় ছেলে প্রভাকর পাল বাপ্পা বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামাদের আসামি করে বালাগঞ্জ থানায় মামলা করেছিলেন।


১০ দিনের পেরিয়ে গেলেও চাঞ্চল্যকর এই হত্যা মামলার রহস্য উদঘাটন করতে না পারায় ক্ষোভ বিরাজ করছে নিহতের পরিবার স্বজন ও এলাকাবাসীর মধ্যে।


ধীরাজ হত্যার সুষ্ঠ তদন্ত ও রহস্য উদঘাটনের দাবিতে গত ৩০ মে সিলেট বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নিয়ে সিলেট-জকিগঞ্জ সড়ক অবরোধ করেন দক্ষিণ সুরমার আলমপুর এলাকাবাসী। ধীরাজ এই এলাকার মৃত দিজেন্দ্র পালের ছেলে।


বালাগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ নাজমুল হাসান বলেন, ‘এই হত্যার রহস্য উদঘাটনের কাছাকাছি চলে এসেছে পুলিশ। আশা করছি আমরা দ্রুতই জানাতে পারব।’

মন্তব্য

আরও দেখুন

নতুন যুগ টিভি