ট্রেন চালুর প্রস্তুতি

রাজশাহীতে ট্রেন চালুর প্রস্তুতি

রাজশাহীতে ট্রেন চালুর প্রস্তুতি
সর্বমোট পঠিত : 5 বার
জুম ইন জুম আউট পরে পড়ুন প্রিন্ট

রাজশাহীতে ট্রেন চলাচলের প্রস্তুতি চলছে। এখনও প্রাতিষ্ঠানিক নির্দেশনা না পেলেও মৌখিক নির্দেশের প্রেক্ষিতে প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে। আগামী ২৯ এপ্রিল থেকে ট্রেন চলাচল শুরু হতে পারে এমন ধারণা থেকে চলছে প্রস্তুতি। সোমবার সকাল থেকে রাজশাহী রেলওয়ে স্টেশনে প্রস্তুতি শুরু হয়েছে। স্টেশনের টিকিট কাউন্টারগুলোর সামনে শারীরিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে বৃত্তগুলো ঘষামাজার কাজ শুরু হয়েছে। মঙ্গল ও বুধবার সব আন্তঃনগর ট্রেনের ট্রায়াল রান হবে। টিকিট কাউন্টারসহ প্লাটফরম পরিষ্কার কাজও করা হচ্ছে।

শারীরিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে টিকিট কাউন্টারের সামনে বৃত্ত আাঁকা হচ্ছে। এসব বৃত্তে দাঁড়িয়ে যেন যাত্রীরা নিরাপদে টিকিট ক্রয়/সংগ্রহ করতে পারেন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে ট্রেনের জন্য অপেক্ষা করতে পারেন সেই ব্যবস্থা এগুলো।


পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের একটি সূত্র জানিয়েছে, রেলওয়ের মহাপরিচালকের দপ্তার থেকে প্রস্তুতি রাখার নির্দেশনা এসেছে। এতে বলা হয়েছে ট্রেন চালু হলে শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে টিকিট বিক্রি/সংগ্রহ, ট্রেনগুলো জীবাণুমুক্তকরণ ব্যবস্থা ও যাত্রীদের স্যানিটাইজেশনের বিভিন্ন দিক নিয়ে প্রস্তুতি নিতে হবে। রেলওয়ে মন্ত্রণালয় থেকে কোনো সময় ট্রেন চালুর সিদ্ধান্ত হলে দ্রুত তা বাস্তবায়ন করা যায়।


রাজশাহী রেলওয়ে স্টেশনের ব্যবস্থাপক আবদুল করিম বলেন, ট্রেন চালুর লিখিত কোনো চিঠিপত্র পাওয়া যায়নি। তবে মৌখিক নির্দেশনার প্রেক্ষিতে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নসহ ট্রেন চালু হলে স্বাস্থ্যবিধি যাতে মানা যায় সেটির ব্যবস্থা করা হচ্ছে।


স্টেশনের ব্যবস্থাপক বলেন, এই রেলস্টেশন থেকে পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের মোট ১৩ জোড়া আন্তঃনগর ট্রেন চলাচল করে। এছাড়া মেইল ট্রেন চলে তিনজোড়া এবং কমিউটার ট্রেন চলে দুই জোড়া।


পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের মহাব্যবস্থাপক খোন্দকার শহিদুল ইসলাম বলেন, ‘ট্রেন চালুর বিষয়ে এখনও আমরা কোন নির্দেশনা পাইনি। তবে মৌখিক ভাবে আমাদের প্রস্তুতি নিতে বলা হয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় আমরা রাজশাহী স্টেশন, প্লাটফরম ও টিকেট কাউন্টারসহ সব জায়গার স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিতের জন্য ব্যবস্থা গ্রহণ করেছি। ট্রেনগুলোও পরিষ্কার করা হচ্ছে। ট্রেন চালুর নির্দেশনা পেলেই আমরা চালানোর জন্য সকল ধরণের প্রস্তুতি রাখছি। টিকিট কাউন্টারের সামনে লালবৃত্ত দেয়া হলেও টিকিট অনলাইনেই দেয়ার কথা আমার বলেছি।’


করোনা পরিস্থিতির কারণে সারা দেশে গত ১৪ এপ্রিল থেকে ট্রেন চলাচল বন্ধ রয়েছে।

মন্তব্য

আরও দেখুন

নতুন যুগ টিভি