অটোরিক্সার চালককে খুনের চেষ্টা ॥ অটো ছিনতাই চক্রের ২ কিশোর সদস্য গ্রেফতার

সর্বমোট পঠিত : 32 বার
জুম ইন জুম আউট পরে পড়ুন প্রিন্ট

এসময় পুলিশ সুপার জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তারকৃতরা ঘটনায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে। এছাড়াও এ ঘটনায় জড়িত একই গ্রামের মো. বুলবুল মিয়ার ছেলে মো. সিয়াম (১৭) এর নাম প্রকাশ করেছে। সিয়ামকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে বলে জানান তিনি।


অটোরিক্সা ছিনতাইয়ের উদ্দেশ্যে শেরপুরের নকলায় অটো চালককে ছুরিকাঘাত করে অটো ছিনতাই চেষ্টাযর অভিযোগে অটো ছিনতাই চক্রের ২ কিশোর সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

সোমবার (৮ জুলাই) নকলা থানার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেপ্তার করে নকলা থানা পুলিশ।

এবিষয়ে আজ ৮ জুলাই সোমবার দুপুরে শেরপুর পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে সাংবাদিক সম্মেলন করে এ তথ্য জানান পুলিশ সুপার মো. আকরামুল হোসেন পিপিএম। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো নকলা থানার কাজাইকাটা পূর্বপাড়ার মো. সেতু মিয়ার ছেলে মো. সাকিবুল হাসান জয় (১৬) ও বালিয়াদী মধ্যপাড়ার মো. আব্দুল বারেকের ছেলে মো. তানভীর বর্ণ (১৫)।

এসময় পুলিশ সুপার জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তারকৃতরা ঘটনায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে। এছাড়াও এ ঘটনায় জড়িত একই গ্রামের মো. বুলবুল মিয়ার ছেলে মো. সিয়াম (১৭) এর নাম প্রকাশ করেছে। সিয়ামকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে বলে জানান তিনি।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গ্রেপ্তারকৃতরা নিজেদের মধ্যে আলোচনা করে অটো ছিনতায়ের পরিকল্পনা করে। পরে পরিকল্পনা মোতাবেক রবিবার রাতে নকলা থানার চন্দ্রকোনার মৃত হাছেন আলীর ছেলে ওসমান মিয়ার (৬০) এর অটোরিক্সা ভাড়া করে। তারা প্রথমে বানেশ্বরর্দী ইউনিয়নের মিলন বাজারে যায়। রাত সোয়া একটার দিকে সেখান থেকে বাউশাগামী রাস্তায় একটি কালভার্টের কাছে পৌঁছে। পরে সেখান থেকে তাকে বানেশ্বরদী বাজারে যেতে বলে। এতো রাতে সেখানে যেতে অস্বীকার করলে তারা চালককে হত্যার উদ্দেশ্যে চাকু নিয়ে তার উপর হামলা চালিয়ে ছুড়িকাঘাত করে। এসময় চালক ওসমান মিয়ার ডাক চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এলে ছিনতাইকারীরা পালিয়ে যায়।

হামলায় আহত চালক ওসমানকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় স্থানীয়রা উদ্ধার করে প্রথমে নকলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এবং সেখান থেকে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে আরও উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজে পাঠায়। বর্তমানে হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছেন ওসমান মিয়া। এ ঘটনায় ওসমান মিয়ার ছোটভাই মো. আক্কাস আলী বাদী হয়ে নকলা থানায় মামলা দায়ের করেন। পরে পুলিশ তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ করে নিশ্চিত হয়ে নকলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তানভীর বর্ণ ও সাকিবুল হাসান জয়কে গ্রেপ্তার করে।
এ ব্যাপারে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

মন্তব্য

আরও দেখুন

নতুন যুগ টিভি