যতদিন নিঃশ্বাস থাকবে, মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনে কাজ করবো: প্রধানমন্ত্রী

সর্বমোট পঠিত : 34 বার
জুম ইন জুম আউট পরে পড়ুন প্রিন্ট

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, প্রতিনিয়ত জীবন নাশের আশঙ্কা থাকলেও মানুষের কল্যাণে কাজ করতে পিছপা হই না। যতদিন নি:শ্বাস থাকবে, মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনে কাজ করবো। আজ বুধবার স্পেশাল সিকিউরিটি ফোর্সের ৩৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি।


প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, প্রতিনিয়ত জীবন নাশের আশঙ্কা থাকলেও মানুষের কল্যাণে কাজ করতে পিছপা হই না। যতদিন নি:শ্বাস থাকবে, মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনে কাজ করবো। আজ বুধবার স্পেশাল সিকিউরিটি ফোর্সের ৩৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি।

বাংলাদেশ কারও সাথে যুদ্ধ চায় না কিন্তু আক্রান্ত হলে প্রতিরোধের ক্ষমতা থাকতে হবে।

ঘেরাটোপে সরকার প্রধান যেন বিচ্ছিন্ন না হয়ে পড়েন তাও নিশ্চিত করতে এসএসএফকে নির্দেশ দেন সরকার প্রধান।
তিনি বলেন, শুধু তিনি নন, যারা তার নিরাপত্তায় নিয়োজিত তাদেরও প্রতিনিয়ত নানা ধরণের ঝুঁকিতে থাকতে হয়।

প্রধানমন্ত্রী আশা প্রকাশ করেন শৃঙ্খলা, দক্ষতা এবং পেশাদারিত্বে এ বাহিনী বিশ্বের আদর্শ নিরাপত্তা বাহিনীকে পরিণত হবে।

তিনি আরও বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রধান লক্ষ্যই ছিল বাংলাদেশকে স্বাধীন দেশ হিসেবে বিশ্বের দরবারে নিয়ে যাওয়া। কিন্তু সেটা করতে দেওয়া হয়নি।

সরকারপ্রধান বলেন, সদ্য স্বাধীন বাংলাদেশ যাতে বিশ্বের বুকে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে পারে, সেজন্য বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন জাতির পিতা। প্রতিরক্ষা নীতি প্রণয়ন করেছেন তিনি।

আমরা সরকার গঠন করে যুদ্ধাপরাধের বিচার শুরু করি। অথচ পূর্ববর্তীরা সেই যুদ্ধাপরাধীদের ক্ষমতায় বসিয়েছে। আমরা দেশ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ করেছি, বলেন প্রধানমন্ত্রী।

শেখ হাসিনা বলেন, ২০০৯ সাল থেকে টানা ক্ষমতায় থাকায় দেশের উন্নয়ন একটি টেকসই রূপ পেয়েছে।

তিনি আরও বলেন, ১৫ আগস্টের পর যারা ক্ষমতায় এসেছিল তারা দেশকে এগিয়ে নিতে পারেনি; বরং দেশে ক্যু হয়েছে।

মন্তব্য

আরও দেখুন

নতুন যুগ টিভি