শেরপুরে বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে জজশীপ ও বারের ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্টের ফাইনাল অনুষ্ঠিত

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০১তম জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে শেরপুরে জেলা জজশীপ ও জেলা আইনজীবী সমিতির যৌথ আয়োজনে ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্টের ফাইনাল অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১৭ মার্চ বুধবার রাতে আদালত চত্বরে অনুষ্ঠিত ওই টুর্নামেন্টের ফাইনালে জজশীপ জুটি (অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আব্দুর সবুর মিনা-যুগ্ম জেলা জজ-২ একেএম জাহাঙ্গীর আলম) সরাসরি ২-০ সেটে বার জুটিকে (বারের নবনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক তারিকুল ইসলাম ভাসানী-সাবেক সাধারণ সম্পাদক খন্দকার মাহবুবুল আলম রকীব) হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। খেলা শেষে চ্যাম্পিয়ন ও রানার্সআপ জুটির মাঝে পুরস্কার তুলে দেন প্রধান অতিথি জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ আল মামুন।

এ উপলক্ষে জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা এ্যাডভোকেট মোখলেসুর রহমান আকন্দের সভাপতিত্বে আয়োজিত আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোঃ আখতারুজ্জামান, চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট এসএম হুমায়ুন কবীর, অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আব্দুর সবুর মিনা ও জেলা দায়রা আদালতের পিপি এ্যাডভোকেট চন্দন কুমার পাল। অন্যান্যের মধ্যে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি একেএম মোছাদ্দেক ফেরদৌসী ও রফিকুল ইসলাম আধার, স্পেশাল পিপি গোলাম কিবরিয়া বুলু, অতিরিক্ত পিপি ইমাম হোসেন ঠান্ডু ও জেলা আইনজীবী সমিতির নবনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক তারিকুল ইসলাম ভাসানী।

অনুষ্ঠানে যুগ্ম জেলা জজ-১ কামাল হোসেন, অতিরিক্ত চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সুলতান মাহমুদসহ অন্যান্য বিচারকগণ এবং জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব আব্দুল কাদের খান, সাখাওয়াতউল্লাহ তারা, আবুল মানসুর স্বপন, খন্দকার মাহবুবুল আলম রকীব, বর্তমান সিনিয়র সহ-সভাপতি হরিদাস সাহা, সহ-সভাপতি আশরাফুল আলম লিচু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রাশেদুজ্জামান রাসেল ও আমিনুল ইসলাম মমিনসহ অন্যান্য কর্মকর্তা ও সাধারণ আইনজীবীগণ উপস্থিত ছিলেন। সমিতির সাহিত্য ও পাঠাগার সম্পাদক মেরাজ উদ্দিন চৌধুরীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে ব্যবস্থাপনায় ছিলেন ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক মোঃ মুক্তারুজ্জামান মুক্তার।
একই অনুষ্ঠানে নবাগত সিনিয়র সহকারী জজ হাফিজ আল আসাদ ও জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মেহেদি হাসানকে বারের তরফ থেকে ফুলেল শুভেচ্ছায় বরণ করে নেওয়া হয়। এরপর অতিথিরা বঙ্গবন্ধুর ১০১তম জন্মদিনের কেক কাটেন।

Top
ঘোষনাঃ