প্রধানমন্ত্রীর ‘উপহারের’ ঘরে আগুন দেওয়ার অভিযোগ


নিউজ ডেস্ক:
মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজলার রাউৎগাঁওয়ে মুজিববর্ষে প্রধানমন্ত্রীর দেয়া উপহারের একটি ঘরে আগুন ধরিয়ে দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এই অভিযোগ উঠেছে রাউৎগাঁও ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য নোমান আহমেদের ওপর।

এ বিষয়ে ইউনিয়ন ভূমি সহকারি কর্মকর্তা মো. ফজলুল করিম চৌধুরী কুলাউড়া থানায় মামলা করেছেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কুলাউড়া থানার অফিসার্স ইনচার্জ বিনয় ভূষণ রায়।

তিনি জানান, ভূমিহীন ও গৃহহীন ১১০টি পরিবারকে পূণর্বাসনের অংশ হিসেবে রাউৎগাঁও ইউনিয়নের মুকুদপুর গ্রামে ১২টি ঘর নির্মাণ করা হয়। এর মধ্যে একটি ঘর দেয়া হয় ওই এলাকার খুরশিদা বেগম নামে এক নারীকে।

এরজন্য খুরশিদা বেগমের নামে ওই ঘর বরাদ্দ নিতে প্রথম দিক থেকেই ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য নোমান আহমেদ চেষ্টা তদবির করে আসছিল।

অভিযোগে জানা গেছে, ওই মহিলা বরাদ্ধ পাওয়া ঘরে এরই মধ্যে বসবাস করতে শুরু করেন। তবে তিনি ঘরে ওঠার আগে ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য নোমান আহমদের অনুমতি না নেওয়াতে সে ক্ষুব্ধ হয় এবং খুরশিদা বেগমকে হুমকি দেন। ১১ ফেব্রুয়ারি খুরশিদা বেগমের অনুপস্থিতে তালা ভেঙ্গে ঘরে ঢুকে আগুন লাগিয়ে দেয়।

এসময় আশপাশের মানুষের চিৎকার শুনে আগুন নেভান স্থানীয়রা। এ ব্যাপারে ইউনিয়ন ভূমি সহকারি কর্মকর্তা মো. ফজলুল করিম চৌধুরী কুলাউড়া থানায় মামলা করেছেন ওয়ার্ড সদস্য নোমান আহমেদের নামে।

Top
ঘোষনাঃ