নামাজের আগে জঙ্গিবাদের কুফল নিয়ে বয়ানের আহ্বান ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর


নিউজ ডেস্ক:
সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ প্রতিরোধ ও মাদক-বাল্যবিয়ের বিরুদ্ধে সচেতনতা তৈরিতে আলেম-ওলামাদের ভূমিকা রাখার আহ্বান জানিয়েছেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খান।

মঙ্গলবার (১৯ জানুয়ারি) সকালে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে ইসলামিক ফাউন্ডেশন অডিটোরিয়ামে ‘সহিংসতা ও চরমপন্থা প্রতিরোধে ইসলামিক বিজ্ঞজনদের ভূমিকা’ শীর্ষক সেমিনার এ কথা বলেন তিনি।

আলেম-ওলামাদের উদ্দেশ্য করে মন্ত্রী বলেন, নামাজের আগে আপনারা যদি সমাজের বাল্যবিয়ে, সন্ত্রাস, মাদক এ সমস্ত বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন, তাহলে আমার মনে হয় দেশে সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ থাকবে না।

তিনি বলেন, পবিত্র জুমার নামাজের দিন ইমাম ও খতিবরা মসজিদে জঙ্গিবাদের কুফল নিয়ে আলোচনা করলে দেশে জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাস থাকবে না

সেমিনারে ঢাকা মহানগর পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম বলেন, যারা জঙ্গিবাদ থেকে ফিরে আসতে চায় তাদের পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

এছাড়া যারা জঙ্গিবাদের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে কারাগারে রয়েছে তাদের কাউন্সিলিং করার উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

জঙ্গিরা হোলি আর্টিজান হামলা পর দেশকে অস্থিতিশীল করতে আরও হামলা চালাতে একটি মহল অর্থ সহায়তাসহ নানাভাবে অনুপ্রাণিত করেছিল উল্লেখ করে কাউন্টার টেরোরিজম প্রধান বলেন, সরকারের নানামুখী পদক্ষেপে জঙ্গিবাদ কার্যকরভাবে প্রতিরোধ করা গেছে।

জঙ্গিবাদ নিয়ন্ত্রণে বাংলাদেশ এখন রোল মডেল মন্তব্য করে মনিরুল ইসলাম বলেন, বাংলাদেশে আল কায়েদার কোনো অস্তিত্ব নেই। বৈশ্বিক সূচকে জঙ্গিবাদের ঝুঁকির দিক থেকে বাংলাদশে এখন ইউরোপ-আমেরিকার অনেক দেশ থেকে নিরাপদ।

Top
ঘোষনাঃ