বৌভাতে মাংস কম দেওয়া নিয়ে সংঘর্ষ, বরের চাচা নিহত


নিউজ ডেস্ক:
বরিশালে বৌভাতের অনুষ্ঠানে মাংস কম দেওয়াকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের হামলা-সংঘর্ষে বরের চাচা নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আরও সাতজন আহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার (০৫ জানুয়ারি) বিকেলে বাবুগঞ্জ উপজেলার চাঁদপাশা ইউনিয়নের দক্ষিণ রাফিয়াদী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনার পরপরই জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১২ জনকে আটক করেছে পুলিশ। নিহত আজাহার মীর (৬৫) একই এলাকার মৌজে আলী মীরের ছেলে।

বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের বিমান বন্দর থানার ওসি জাহিদ-বিন আলম জানান, দক্ষিণ রফিয়াদি গ্রামের মোতাহার মীরের ছেলে সজীব মীর দুইদিন আগে বরিশাল নগরীর কাউনিয়া সাবান ফ্যাক্টরি এলাকার আবুল কালাম হাওলাদারের মেয়ে রুনা বেগমকে বিয়ে করেন। ওইদিন বরযাত্রা অনুষ্ঠানের মাধ্যমে রুনা বেগমকে বাবার বাড়ি থেকে শ্বশুর বাড়ি রাফিয়াদী নেওয়া হয়। মঙ্গলবার (০৫ জানুয়ারি) বরের বাড়িতে বৌভাত অনুষ্ঠানে কনে পক্ষের ৪৮ জন অতিথি অংশগ্রহণ করে। খাবারের এক পর্যায়ে মাংস কম দেওয়াকে কেন্দ্র কনে পক্ষের অতিথিদের সাথে বর পক্ষের লোকজনের বাদানুবাদ এবং এক পর্যায়ে হাতাহাতি ও সংঘর্ষ হয়। দুই পক্ষের হামলা-সংঘর্ষের মধ্যে পড়ে আঘাত লেগে বরের চাচা আজহার মীর ঘটনাস্থলেই নিহত হযন।

এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য কনে পক্ষের ১২ জনকে আটক করা হয়েছে। মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরসহ আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান ওসি জাহিদ-বিন আলম।

Top
ঘোষনাঃ