মুরগি নিয়ে বিরোধ, স্বামী-ছেলেকে বাঁচাতে গিয়ে গৃহবধূর মৃত্যু


নিউজ ডেস্ক:
একটি মুরগি মেরে ফেলা নিয়ে সৃষ্ট বিরোধের জেরে বরিশালে ভাশুর ও তার পরিবারের সদস্যের লাঠির আঘাতে আহত গৃহবধূ নাসিমা বেগম (৪৫) মারা গেছেন। শনিবার (২ জানুয়ারি) রাত ৮টার দিকে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

নাছিমা বরিশাল সদর উপজেলার চাঁদপুরা ইউনিয়নের কুন্দিয়ালাপাড়া গ্রামের ইনসান শরীফের স্ত্রী। হামলায় আহত ইনসাফ শেরেবাংলা মেডিকেলে চিকিৎসা নিচ্ছেন। এ ঘটনায় হামলাকারী রুশিয়া বেগমকে শনিবার রাতে গ্রেফতার করেছে মেট্রোপলিটনের বন্দর থানা পুলিশ।

মৃতের স্বামী ইনসান শরীফ জানান, ২৯ ডিসেম্বর তার একটি মুরগি কেউ মেরে ফেলে। এ নিয়ে বিরোধের জেরে তার বড় ভাই সুলতান শরীফ, ভাবি রুশিয়া বেগম এবং তাদের তিন ছেলে জাকির, জলিল ও রাসেল ওই দিন রাতে হঠাৎ তার ওপর হামলা চালায়। তাকে পিটিয়ে রক্তাক্ত করে তারা। ইনসাফকে রক্ষা করতে তার ছেলে নাইম এগিয়ে গেলে তাকেও পিটিয়ে আহত করে তারা।

এ সময় নাসিমা বেগম স্বামী ও সন্তানকে রক্ষা করতে গেলে তাকেও বেদম পিটিয়ে আহত করে হামলাকারীরা। নাছিমা মাটিয়ে লুটিয়ে পড়লে তার বুকে আঘাত করে তারা। ওই রাতেই নাসিমা একাধিকবার বমি করেন। তাদের দুজনকে শেরেবাংলা মেডিকেলে ভর্তি করা হয়। নাইমকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। শনিবার রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় নাসিমার মৃত্যু হয়।

এ বিষয়ে বরিশাল মেট্রোপলিটনের বন্দর থানার (ওসি) আনোয়ার হোসেন তালুকদার জানান, পুরো ঘটনার তদন্ত চলছে। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরসহ যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে।

Top
ঘোষনাঃ