শ্রীবরদীতে স্বর্ণের দোকানে হামলার অভিযোগ


শ্রীবরদী প্রতিনিধি:
শেরপুরের শ্রীবরদীতে মা মনি জুয়েলার্স নামে এক স্বর্ণের দোকানে হামলার অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে পৌরশহরের জবেদ আলী মার্কেটের সাহেব আলীর মা মনি জুয়েলার্স দোকানে এ হামলার ঘটনা ঘটে। এতে গুরতর আহত হয়েছে সাহেব আলীর ছেলে সেলিম মিয়া ওরফে উজ্জল। এ সময় ভাংচুর করে প্রায় তিন লাখ টাকার স্বর্ণের অলংকারসহ মালামাল লুট করেছে বলে তিন জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন স্বর্ণের দোকান মালিক সাহেব আলী।

অভিযোগে জানা যায়, বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে পৌরশহরের খামারিয়াপাড়া এলাকার মৃত আব্দুল বারেকের ছেলে কুরবান আলী (৪৫) জবেদ আলী মার্কেটের সাহেব আলীর মা মনি জুয়েলার্স দোকানে যায়। এ সময় উজ্জলের কাছ থেকে এক হাজার টাকা ধার চায়। ওই টাকা না দেয়ায় ধারালো অস্ত্র নিয়ে কুরবান আলী তার ওপর হামলা করে। এ সময় দোকানের গ্লাস ভাংচুর করে স্বর্ণের অলংকার ও টাকা নিয়ে যায়। পরে আশপাশের লোকজন তাকে আহত অবস্থায় ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে উপজেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। দায়িত্বরত ডাক্তার জানান, উজ্জলের মাথায় ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের কারণে রক্তক্ষরণ হয়েছে। তার চিকিৎসা চলছে।
সাহেব আলী বলেন, অভিযুক্তরা দোকানে হামলা চালিয়ে আমার ছেলেকে গুরুতর আহত করে। এ সময় আমার দোকান থেকে নগদ টাকা ও স্বর্ণ অলংকার নিয়ে যায়। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ দিয়েছি। আমি এর বিচার চাই।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত মো: কুরবান আলী জানান, সেলিম মিয়া ওরফে উজ্জল আমাকে মারধর করেছে। দোকান ভাংচুরের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমরা দোকানের ভিতরে যায়নি, তারা নিজেই দোকানের গ্লাস ভাংচুর করেছে বলে আমরা শুনেছি।

Top
ঘোষনাঃ